• বৃহস্পতিবার, জুন ২৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩০ রাত

ফখরুল : খালেদার প্যারোলের সিদ্ধান্ত দলীয় বিষয় নয়

  • প্রকাশিত ০৬:৫৩ সন্ধ্যা এপ্রিল ১৫, ২০১৯
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ছবি- সংগৃহীত

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘প্যারোল নিয়ে আমরা তার সাথে কোনো আলোচনা করিনি।'

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া প্যারোলে মুক্তির জন্য আবেদন করবেন কি না-সেটি তার নিজের এবং পরিবারের সিদ্ধান্তের বিষয় বলে জানিয়েছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ সোমবার জিয়াউর রহমানের কবর প্রাঙ্গণে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন বিএনপির এই নেতা।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘প্যারোল নিয়ে আমরা তার (খালেদা) সাথে কোনো আলোচনা করিনি। এটি আমাদের দলের বিষয় নয়। এটি সম্পূর্ণভাবে খালেদা জিয়া ও তার পরিবারের সাথে জড়িত একটি বিষয়। সুতরাং, বিষয়টি নিয়ে আমরা তার সাথে কথা বলিনি।’

বিএনপির দুই নেতাকে সঙ্গে নিয়ে গতকাল রোববার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) খালেদা জিয়ার সাথে সাক্ষাৎ করা মির্জা ফখরুল।

মির্জা ফখরুল জানান,  খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎকালে তারা তার চিকিৎসা ও মামলা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছেন।

বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশে গণতন্ত্র ‘পুনঃপ্রতিষ্ঠার’ জন্য দেশবাসীকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়েছেন বলে উল্লেখ করেন তিনি।

বিএনপির এ নেতা আরও বলেন, খালেদা জিয়া বিএনপি ও অন্যান্য কিছু দলের সঙ্গে জনগণের ঐক্য অটুট রাখার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেছেন।

দলের নির্বাচিত ছয় সংসদ সদস্যের শপথগ্রহণ নিয়ে চেয়ারপারসনের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে কিনা তা জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল না সূচক জবাব দেন। ‘বর্তমান সংসদ নির্বাচিত সংসদ বলে আমরা মনে করি না। সেই সাথে আমরা তথাকথিত নির্বাচনের ফল প্রত্যাখ্যান করেছি।’

তিনি জানান, খালেদা জিয়াকে কারামুক্ত এবং গণতন্ত্র ‘পুনঃপ্রতিষ্ঠায়’ সরকারকে বাধ্য করার জন্য তারা আন্দোলন শুরুর প্রস্তুতি নিয়ে আলাপ চালিয়ে যাচ্ছেন।

গতকাল খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ফখরুল বলেন, বিএসএমএমইউতে গত দুই সপ্তাহে তাদের চেয়ারপারসনের শারীরিক অবস্থার খুব বেশি উন্নতি হয়নি। উনি এখনো ভালোভাবে খেতে এবং পা ভাঁজ করতে পারছেন না। তার বাম হাতে কোনো উন্নতি নেই। তিনি এ হাতে কাজ করতে পারছেন না এবং তিনি এমন অবস্থার মাঝ দিয়েই যাচ্ছেন। 

বিএনপি মহাসচিব বলেন, তাদের চেয়ারপারসনকে তার পছন্দ অনুযায়ী বিশেষায়িত হাসপাতালের চিকিৎসক দিয়ে সুচিকিৎসা করানো একান্ত প্রয়োজন।

গত বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি বিশেষ আদালতে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত হওয়ার পর থেকে খালেদা জিয়া কারাগারে আছেন।

খালেদা জিয়াকে বিশেষায়িত হাসপাতালে ভর্তির জন্য বিএনপি নেতাদের দাবির মাঝে গত ১ এপ্রিল তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য পুরান ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে বিএসএমএমইউতে স্থানান্তর করা হয়।