• শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:০৪ রাত

‘চা খাওয়ার জন্য এসেছি’, বিএনপি কার্যালয়ে তালা প্রসঙ্গে ছাত্রদল নেতা

  • প্রকাশিত ১২:৪৫ দুপুর জুন ১১, ২০১৯
বিএনপি
কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তালা দিয়ে ছাত্রদল নেতা-কর্মীদের বিক্ষোভ। ছবি: ফোকাস বাংলা

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তারা কার্যালয়ের প্রবেশ গেটে তালা ঝুলিয়ে দেন। এ সময় তাদের ‘ছাত্রদল নিয়ে কোনও ষড়যন্ত্র হতে দেবো না’, ‘আওয়ামী লীগের দালালরা হুঁশিয়ার সাবধান’−এ ধরনের স্লোগান দিতেও দেখা গেছে।

বিএনপির নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের প্রবেশ গেটে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছেন ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা। 

১১ জুন, মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তারা কার্যালয়ের প্রবেশ গেটে তালা ঝুলিয়ে দেন। এ সময় তাদের ‘ছাত্রদল নিয়ে কোনও ষড়যন্ত্র হতে দেবো না’, ‘আওয়ামী লীগের দালালরা হুঁশিয়ার সাবধান’−এ ধরনের স্লোগান দিতেও দেখা গেছে। 

বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তালা দেওয়ার কারণে সেখানে প্রবেশ না করতে পেরে বাইরে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন ও বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানীকে। খবর বাংলা ট্রিবিউনের। 

প্রসঙ্গত, গত ৩ জুন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশনায় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ছাত্রদলের মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি ভেঙে দেওয়া হয়। একই সঙ্গে আগামী ৪৫ দিনের মধ্যে কাউন্সিল করে নতুন কমিটি করারও নির্দেশনা দেওয়া হয়।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২০০০ সালে যারা এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন তারাই ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কাউন্সিলের প্রার্থী হতে পারবেন। ওইদিন থেকেই ছাত্রদলের বয়স্ক নেতাকর্মীদের একাংশ ক্ষুব্ধ হন। তারাই আজকে বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে তালা দেয় এবং বিক্ষোভ করেন।

ছাত্রদলের নেতারা বিক্ষুব্ধ কেন, এ বিষয়ে জানতে চাইলে ছাত্রদলের মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির এক নম্বর সিনিয়র সহ-সভাপতি এজমল হোসেন পাইলট বলেন, “আমরা তেমন বিক্ষুব্ধ না। ঈদের পর এখানে এসেছি চা খাওয়ার জন্য।”