• শুক্রবার, আগস্ট ২৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৪:০৩ বিকেল

হানিফ: বিএনপির প্রতিটি সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের বিচার করা হবে

  • প্রকাশিত ০৯:৪৫ রাত জুলাই ১৮, ২০১৯
মাহবুব উল আলম হানিফ
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ। ফাইল ছবি

'আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ট্রেনবহরে গুলিবর্ষণ ও বোমা হামলা মামলায় দণ্ডপ্রাপ্তদের পক্ষ নিয়ে বিএনপি প্রমাণ করেছে বিএনপির উচ্চ পর্যায়ের নির্দেশেই এ হামলা হয়েছিল'

বিএনপির প্রতিটি সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের বিচার করা হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ।

দুপুরে জেলা পাবনা জেলা শহরের দোয়েল কমিউনিটি সেন্টারে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন তিনি।

হানিফ বলেন, "আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ট্রেনবহরে গুলিবর্ষণ ও বোমা হামলা মামলায় দণ্ডপ্রাপ্তদের পক্ষ নিয়ে বিএনপি প্রমাণ করেছে বিএনপির উচ্চ পর্যায়ের নির্দেশেই এ হামলা হয়েছিল। বিএনপির প্রতিটি সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের বিচার করা হবে।"

এসময় ঐক্যবদ্ধ থাকলে কোন অপশক্তিই আওয়ামী লীগকে ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে কিছুই করতে পারবে না উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, "১৯৯৪ সালে ঈশ্বরদীতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে তার ওপর হামলা করা হয়। আমরা সেদিন প্রতিবাদ করেছিলাম। সেদিন বিএনপি সরকার রাষ্ট্রক্ষমতা ও প্রশাসন ব্যবহার করে শেখ হাসিনার উপর হামলা করেছিল।"

"দীর্ঘদিন পর ওই সন্ত্রাসীদের বিচার হয়েছে। ঘটনা সত্য প্রমাণিত হওয়ায় আদালত তাদের বিরুদ্ধে রায় দিয়েছেন। আর বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম তাদের পক্ষে সাফাই গেয়ে বিবৃতি দিয়েছেন। বিএনপির এমপিরা পাবনায় এসেছেন সাজাপ্রাপ্তদের প্রতি সহানুভূতি জানাতে। আমরা দাবি করি এই হামলার নেপথ্যে যারা ষড়যন্ত্রকারী ছিলেন যাচাই করে তাদেরকে বিচারের আওতায় আনা হোক", যোগ করেন তিনি।

জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক জামিরুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলন উদ্বোধন করেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি এডভোকেট মোল্লা মো. আবু কাউসার। সম্মেলনের প্রধান বক্তা ছিলেন কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ দেবনাথ।

সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শামসুর রহমান শরীফ ডিলু, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার তানভীর শাকিল জয়, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম ফাররুক প্রিন্স, শামসুল হক ও আহমেদ ফিরোজ কবির প্রমুখ।