• বুধবার, অক্টোবর ১৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:১৭ সকাল

বারো বছর পর কোপার ফাইনালে ব্রাজিল

  • প্রকাশিত ১২:৫০ দুপুর জুলাই ৩, ২০১৯
ব্রাজিল ফুটবল
আর্জেন্টিনার বিপক্ষে জয়ের পর ব্রাজিলের খেলোয়াড়দের উল্লাস এএফপি

এর আগে ২০০৭ সালে কোপা আমেরিকায় মুখোমুখি হয়েছিল দুই ফুটবল পরাশক্তি। সেবারও জয় পেয়েছিল সেলেসাওরা।

কোপা আমেরিকার প্রথম সেমিফাইনালে আর্জেন্টিনাকে ২-০ গোলে হারিয়ে বারো বছর পর ল্যাটিন আমেরিকার শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই কোপা আমেরিকার ফাইনালে পৌঁছেছে স্বাগতিক ব্রাজিল।

বুধবার (৩ জুলাই) বেলো হরিজন্তের মিনেইরো স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ৬টায় শুরু হওয়া ম্যাচে ব্রাজিলের হয়ে দারুণ নৈপুণ্য দেখান গ্র্যাব্রিয়েল জেসুস।

প্রথমার্ধে বল দখলের পাশাপাশি আক্রমণেও আধিপত্য ছিল ব্রাজিলের। ম্যাচের ১৯তম মিনিটে প্রথম গোলটি করেন জেসুস। ৭১তম মিনিটে জেসুসেরই বাড়িয়ে দেওয়া বল থেকে দ্বিতীয় গোলটি করেন রবার্তো ফিরমিনো।

কোপা আমেরিকার আগের চার ম্যাচে নিজেকে হারিয়ে ফেরা আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি এদিন তার স্বরূপে ফিরলেও দলকে জেতাতে পারেননি।

তবে প্রথমার্ধে পিছিয়ে থাকলেও দ্বিতীয়ার্ধে দারুণ কিছু প্রচেষ্টা চালায় লিওনেল স্ক্যালোনির দল। কিন্তু কখনো ব্রাজিলের শক্তিশালী রক্ষণভাগ, কখনো গোলরক্ষক বা গোলবার বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে তাদের।

লিওনেল মেসি, আগুয়েরো, ডি মারিয়া কিংবা মার্তিনেজ ভাঙতে পারেননি ব্রাজিলের রক্ষণভাগ। বরং শেষের দিকে আক্রমণ শাণিত করতে গিয়ে পাল্টা আক্রমণে আরও একটি গোল হজম করে আলবিসেলেস্তেরা।

এর আগে ২০০৭ সালেও কোপা আমেরিকায় মুখোমুখি হয়েছিল দুই ফুটবল পরাশক্তি। সে ম্যাচেও আর্জেন্টিনাকে ৩-০ গোলে হারিয়েছিল আটবারের কোপা শিরোপা জয়ী দল ব্রাজিল।

কোপা আমেরিকায় দ্বিতীয় সেমিফাইনালে বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ছয়টায় মুখোমুখি হবে চিলি ও পেরু। এই ম্যাচের জয়ী দল আগামী রবিবার রিও দে জেনেইরোর মারাকানা স্টেডিয়ামে ফাইনালে ব্রাজিলের মুখোমুখি হবে।