• রবিবার, নভেম্বর ১৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৭:৪১ রাত

২০ লক্ষ তরুণ-তরুণী আউট সোর্সিংয়ের আওতায় আসবে: পলক

  • প্রকাশিত ০৩:০৮ বিকেল সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৮
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক ২০২১ সাল নাগাদ ২০ লক্ষ তরুণ-তরুণী আউট সোর্সিংয়ের আওতায় আসবে বলে মন্তব্য করেছেন। ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন।

‘এই সব হাইটেক পার্কে তোমাদের মত শিক্ষার্থীরাই আগামী দিনে কাজ করবে’

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক ২০২১ সাল নাগাদ ২০ লক্ষ তরুণ-তরুণী আউট সোর্সিংয়ের আওতায় আসবে বলে মন্তব্য করেছেন। রবিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বেলা সাড়ে দশটার দিকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি। 

তিনি বলেন, ‘অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারনেট সোসাইটির রিপোর্ট অনুযায়ী, বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অনলাইন মার্কেট প্লেসে ওয়ার্ক ফোর্স হিসাবে কাজ করছে বাংলাদেশের প্রায় ৬ লক্ষ মেধাবী ও দক্ষ তরুণ-তরুণী। আমরা ২০২১ সাল নাগাদ এ সংখ্যা বাড়িয়ে ২০ লাখ তরুণ-তরুণীকে এ পেশায় নিয়ে আসবো’। 

এসময় তিনি শিক্ষার্থীদের সঠিক তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার জানার আহবান জানান। এচাড়াও প্রতিমন্ত্রী শিক্ষার্থীদের জন্য দেশে ২৮টি হাইটেক পার্ক করা হবে উল্লেখ করে বলেন, ‘প্রযুক্তিগত শিক্ষা আগামী দিনে অপরিসীম সম্ভবনা বয়ে আনবে। ৬০ লক্ষ তরুণ-তরুণী গার্মেন্টস ফ্যাক্টরীতে কাজ করে দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখছে। এমনভাবেই যদি ৬০ লক্ষ তরুণ-তরুণীকে আইটি সেক্টরে কাজ করানো যায়, তাহলে বাংলাদেশে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার আয় হবে। আমরা অন্য রাষ্ট্র থেকে যেসকল প্রযুক্তি আমদানি করি তা নিজের দেশে তৈরি করতে পারবো’। 

এসময় তিনি আরও বলেন, ‘এই সব হাইটেক পার্কে তোমাদের মত শিক্ষার্থীরাই আগামী দিনে কাজ করবে’।         

অনুষ্ঠানে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা ও বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্কের প্রকল্প পরিচালক একেএম ফজলুল হক। অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আব্দুস সোবহান। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি সেন্টারের পরিচালক অধ্যাপক খাদেমুল ইসলাম মোল্যা। 

এর আগে, সকাল ৯টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি সেন্টারে এআর/ ভিআর/এমআর ল্যাব উদ্বোধন করেন প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। 

উল্লেখ্য, ল্যাবটি রাজশাহীতে বাস্তবায়নাধীন বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্ক প্রকল্পের আওতায় তৈরি হয়।