• রবিবার, আগস্ট ১৮, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:০২ রাত

ভুয়া ওয়েবসাইট কীভাবে চিনবেন?

  • প্রকাশিত ০১:১৭ দুপুর নভেম্বর ১৯, ২০১৮
ভুয়া সংবাদ

সম্প্রতি, নকল ওয়েবসাইটের শিকার হয়েছে প্রথম আলো, বাংলা ট্রিবিউন, বিবিসি বাংলার মতো স্বানামধন্য সংবাদ প্রতিষ্ঠানগুলো

সম্প্রতি, ভুয়া খবর প্রচারের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশের স্বনামধন্য কিছু সংবাদ প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটের প্রায় হুবহু নকল ওয়েবসাইট তৈরি করা হয়েছে। এই ফেক কিংবা নকল ওয়েবসাইটের শিকার হয়েছে প্রথম আলো, বাংলা ট্রিবিউন, বিবিসি বাংলার মতো স্বনামধন্য সংবাদ প্রতিষ্ঠানগুলো। বেশিরভাগ পাঠক সামাজিক মাধ্যমে পাওয়া এসব খবর দেখে চিনতে পারেন না কোনটি আসল, আর কোনটি নকল।

এসব ভুয়া ওয়েবসাইটের উদ্দেশ্য হলো বিশ্বাসযোগ্য সংবাদমাধ্যম থেকে ভুয়া খবর প্রকাশ করে পাঠকদের বিভ্রান্ত করে তোলা।তাই ভুয়া ওয়েবসাইট নিয়ে সচেতন হওয়া এখন জরুরি হয়ে পড়েছে। সম্প্রতি বিবিসির একটি বিশেষ প্রতিবেদনে ভুয়া ওয়েবসাইট সনাক্তকরণের কিছু উপায় সম্পর্কে উল্লেখ করা হয়েছে।

ইউআরএল যাচাই করুন

ইন্টারনেটে কখনই এক নামে দুইটি ওয়েবসাইট থাকতে পারেনা। আসল ওয়েবসাইটের সাথে ভুয়া ওয়েবসাইটের ইউআরএলে (ইউনিভার্সাল রিসোর্স লোকেটর) কিছুনা কিছু পার্থক্য থাকবেই। যেমন, প্রথম আলোর ওয়েবসাইটের ইউআরএলে একটি অতিরিক্ত 'এ' যোগ করে এর ভুয়া ওয়েবসাইটটি তৈরি করা হয়েছে। তাই ভুয়া ওয়েবসাইট শনাক্ত করার জন্য আসল ওয়েবসাইটের ইউআরএল এর দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। সম্ভব হলে  ইউআরএলটি মুখস্ত করে ফেলতে হবে কিংবা আসল ওয়েবসাইটটিকে ব্রাউজারে বুকমার্ক করে রাখতে হবে।    

অসামঞ্জস্যপূর্ণ সংবাদ

যদি পরিচিত কোন বিশ্বাসযোগ্য সংবাদমাধ্যম থেকে অসামঞ্জস্যপূর্ণ কিংবা অবাস্তব কোন সংবাদ প্রকাশিত হয় তাহলে সতর্ক হয়ে যেতে হবে।

এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য প্রযুক্তি ইন্সটিটিউটের পরিচালক ড. কাজী মুহাইমিন-আস-সাদিক বলেন, "যখনই কোন সন্দেহজনক সংবাদ চোখে পড়বে, তখন উচিত ডোমেইনটির দিকে তাকানো। বিশেষ করে সামাজিক মাধ্যমে দেখা কোন খবর শেয়ার করার আগে এর উৎস প্রতিষ্ঠানটি ভালো করে দেখা নেয়া উচিত, কারণ এভাবে শেয়ারের মাধ্যমে আপনার কাছের লোকজনকেও বিভ্রান্ত করা হবে।"  

আইক্যানের ব্যবহার 

সারা বিশ্বের সকল ওয়েবসাইটের তথ্য সংরক্ষণ করে আইক্যান (ইন্টারনেট কর্পোরেশন ফর অ্যাসাইনড নেমস অ্যান্ড নাম্বারস)। আইক্যানে যেকোনো ওয়েবসাইটের ঠিকানা লিখে পেস্ট করলে সাথে সাথে ওয়েবসাইটটি কবে তৈরি হয়েছে তা জানা যাবে। যদি দেখেন যে ওয়েবসাইটটি সাম্প্রতিক সময়ে তৈরি করা হয়েছে, তাহলে বুঝতে হবে ওয়েবসাইটটি ভুয়া বা নকল।  আপনার পরিচিত সংবাদ মাধ্যমটি পুরনো হলে তাদের ওয়েবসাইটও হবে পুরনো।

সাধারণত ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানো কিংবা রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য সংবাদমাধ্যমের ভুয়া ওয়েবসাইট তৈরি করা হয়ে থাকে। তাই এক্ষেত্রে পাঠক এবং সংবাদমাধ্যম উভয়েরই ক্ষতিগ্রস্ত হবার সম্ভাবনা থাকে। তাই আমাদের এই ব্যাপারে এখনি সতর্ক হয়ে যাওয়া প্রয়োজন।