• রবিবার, মার্চ ২৪, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:০১ রাত

ফেসবুকের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় কারিগরি সমস্যা

  • প্রকাশিত ০৩:০০ বিকেল মার্চ ১৪, ২০১৯
ফেসবুক
ছবি- বিগস্টক

ফেসবুকের পাশাপাশি ফেসবুক ম্যাসেঞ্জার, ফেসবুকের মালিকানাধীন ছবি শেয়ারিংয়ের অ্যাপ ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারের ক্ষেত্রেও সমস্যায় পড়েছেন ব্যবহারকারীরা

বিশ্বের সর্ববৃহৎ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক যাত্রা শুরুর পর থেকে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় কারিগরি সমস্যায় পড়েছে। বুধবার (১৩ মার্চ) প্রায় ১০ ঘণ্টা ধরে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ফেসবুক ব্যবহারের ক্ষেত্রে বিভিন্ন ধরনের সমস্যায় পড়েছেন ব্যবহারকারীরা। 

অনেকেই ফেসবুকে লগইন করার সময় এরর বার্তা দেখেছেন। ওই বার্তায় লেখা ছিল, ‘স্যরি, সামথিং ওয়েন্ট রং। উই আর ওয়ার্কিং অন গেটিং দিস ফিক্সড এজ ফাস্ট এজ উই ক্যান।’ বার্তাটি দেখছেন।

এরপর ফেসবুকের মোবাইল অ্যাপ কিছুটা স্বাভাবিক হলে এলেও ডেস্কটপ থেকে সমস্যা হচ্ছিল আরও অনেক সময় ধরে। ফেসবুকের বিজ্ঞাপনও ঠিকভাবে কাজ করছিল না। 

এর আগে ২০০৮ সালে ফেসবুক বড় ধরনের কারিগরি সমস্যায় পড়েছিল। তখন ফেসবুকের ব্যবহারকারী ছিল ১৫০ মিলিয়ন। বর্তমানে এই সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২.৩ বিলিয়ন। আর শুরুর পর থেকে এবার সবচেয়ে বড় কারিগরি সমস্যায় পড়লো ফেসবুক।

ফেসবুকের পাশাপাশি ফেসবুক ম্যাসেঞ্জার, ফেসবুকের মালিকানাধীন ছবি শেয়ারিংয়ের অ্যাপ ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারের ক্ষেত্রেও সমস্যায় পড়েছেন ব্যবহারকারীরা। ফেসবুক এক টুইটার বার্তায় তাদের এই সমস্যার কথা স্বীকারও করেছে। 

তারা জানায়, "বিশ্বব্যাপী অনেক ব্যবহারকারী ফেসবুক ব্যবহারের ক্ষেত্রে সমস্যায় পড়েছেন। আমরা দ্রুত সমস্যাটি সমাধানের চেষ্টা করছি।"

ফেসবুকের এমন সমস্যায় মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটারে শুরু হয় নানা আলোচনা। দ্রুত #facebookdown টুইটারে ট্রেন্ডে চলে আসে।   প্রায় এক লাখ ৫০ হাজার টুইটারে এ হ্যাসট্যাগটি ব্যবহার করা হয়।

ওয়েবসাইট পর্যবেক্ষণকারী ওয়েবসাইট ডাউন ডিটেক্টর ডট কমের তথ্য অনুযায়ী, মূলত বুধবার (১৩ মার্চ) সকাল থেকেই ফেসবুক ব্যবহারে সমস্যায় পড়তে থাকেন ব্যবহারকারীরা।  এর মধ্যে লগ-ইন সমস্যায় পড়েন ৩৫ ভাগ ব্যবহারকারী, নিউজফিড ব্যবহারের ক্ষেত্রে ৩৩ শতাংশ এবং অন্যান্য ব্যবহারের ক্ষেত্রে ৩০ শতাংশ ব্যবহারকারী সমস্যায় পড়েছেন।

প্রায় ১২ ঘণ্টা আগে সর্বশেষ করা টুইটারে ফেসবুক নিশ্চিত করেছে, এ কারিগরি সমস্যাটি সাইবার হামলা সংক্রান্ত বা ডিস্ট্রিবিউটেড ডেনিয়েল-অব-সার্ভিস (ডিডিওএস) অ্যাটাক্ট নয়।

তবে ধীরে ধীরে বিভিন্ন দেশে এরইমধ্যে সমস্যাটি সমাধান হচ্ছে বলে জানা গেছে। ব্যবহারকারীরা অনেকেই বিষয়টি জানিয়েছেন টুইটারে।