Thursday, May 23, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ঘুষ লেনদেন: বাছিরের বিদেশ যাত্রায় নিষেধাজ্ঞা

ডিআইজি মিজানের সম্পদের অনুসন্ধান করে তদন্ত রিপোর্ট জমা দেওয়ার আগ মুহূর্তে দুদক কর্মকর্তা খন্দকার এনামুল বাছিরের বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ ওঠে।

আপডেট : ২৬ জুন ২০১৯, ০৭:০৬ পিএম

ঘুষ লেনদেনের ঘটনায় পুলিশের ডিআইজি মিজানুর রহমান ও তার পরিবারের তিন সদস্যের পর এবার দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) বরখাস্ত হওয়া পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছিরের বিদেশ যাত্রায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

ঘুষ লেনদেনের অভিযোগের তদন্ত কর্মকর্তা দুদক পরিচালক শেখ মো. ফানাফিল্যা বুধবার (২৬ জুন) এ বিষয়ে পুলিশের বিশেষ শাখার অতিরিক্ত পুলিশ মহাপরিদর্শককে চিঠি দিয়েছেন বলে জানিয়েছে বাংলা ট্রিবিউন।

চিঠিতে বলা হয়, ‘‘সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির (বাছির) ঘুষ লেনদেন ও মানিলন্ডারিং সংক্রান্ত একটি গুরুত্বপূর্ণ অভিযোগের সত্যতা দুদকের অনুসন্ধানে প্রাথমিকভাবে প্রতীয়মান হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে বক্তব্য নেওয়া একান্ত প্রয়োজন। ইতোমধ্যে অভিযোগ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে বক্তব্য প্রদানের জন্য তার বরাবর নোটিশ প্রেরণ করা হয়েছে। বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায় যে, তিনি সপরিবারে দেশত্যাগ করে অন্য দেশে যাওয়ার চেষ্টা করছেন। অনুসন্ধান কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য বাছিরের বিদেশ গমন ঠেকানো জরুরি।’’

প্রসঙ্গত, ডিআইজি মিজানের সম্পদের অনুসন্ধান করে তদন্ত রিপোর্ট জমা দেওয়ার আগ মুহূর্তে দুদক কর্মকর্তা খন্দকার এনামুল বাছিরের বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ ওঠে। ডিআইজি মিজান নিজেই দাবি করেন দু’দফায় মোট ৪০ লাখ টাকা ঘুষ নেন বাছির। একটি বেসরকারি চ্যানেলে এ বিষয়ে অডিও রেকর্ডও ফাঁস করেন তিনি। এ ঘটনার পর খন্দকার এনামুল বাছিরকে সাময়িক বরখাস্ত ও ওই অনুসন্ধানের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয় দুদক।

About

Popular Links