Sunday, May 19, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

শাহিনের অবস্থা এখনো ঝুঁকিতে

শাহিনের ভ্যান যাত্রীবেশে ভাড়া নেয় দুর্বৃত্তরা।

আপডেট : ৩০ জুন ২০১৯, ০৭:৩৭ পিএম

সাতক্ষীরায় দুর্বৃত্তদের হামলায় আহত ভ্যানচালক মো. শাহিন মোড়লের (১৬) শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা। 

শাহিনের চিকিৎসার জন্য  ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের অধ্যাপক অসিত চন্দ্র সরকারকে প্রধান করে সাত থেকে আট সদস্যের একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। গতকাল শনিবার রাত ১০টায় শাহিনকে ঢামেকে ভর্তি করা হয়।

অধ্যাপক অসিত চন্দ্র সরকার বলেন, শাহিনের অবস্থা আশঙ্কামুক্ত নয়। দুই-তিন দিন না যাওয়া পর্যন্ত অবস্থা সম্পর্কে কিছু বলা যাচ্ছে না।

গত শুক্রবার দুপুরে যশোরের কেশবপুর উপজেলার মঙ্গলকোট গ্রামের হায়দার আলী মোড়লের ছেলে শাহিনের ভ্যান যাত্রীবেশে ভাড়া নেয় দুর্বৃত্তরা। পথে সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটা থানার ধানদিয়ায় শাহিনের মাথা ফাঠিয়ে রক্তাক্ত করে ভ্যানটি নিয়ে পালিয়ে যায় তারা। পরে কান্নার শব্দে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে। 

শাহিনকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে পরদিন শনিবার উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়। 

ঢামেক হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা ইউনিটের (আইসিইউ) সামনে বসে ছিলেন শাহিনের মা খাদিজা বেগম। তিনি ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, শুক্রবার সকাল ৭টার দিকে শাহিনের কাছে ফোন আসে। সে যশোরের কেশবপুর বাজার থেকে চার যাত্রীকে ভ্যানে তুলে নেয়। পরে পথে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। 

খাদিজা আরও বলেন, 'আমি তাকে সব সময় বলতাম ভ্যান না চালাতে। সংসার চালানো তোমার দায়িত্ব না।'  

জানা গেছে, শাহিনের বাবা হায়দার আলী সম্প্রতি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা (এনজিও) থেকে ঋণ নিয়ে ব্যাটারিচালিত ওই ভ্যানটি কেনেন। ওই ভ্যান থেকে রোজগারের অর্থে তাদের সংসার চলতো। পাশাপাশি মেটাতে হতো কিস্তির টাকাও। 

এ বিষয়ে পাটকেলঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিয়াজ হোসেন বলেন, অজ্ঞাতপরিচয় তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। এখনো পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি।  


About

Popular Links