Sunday, May 26, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

সারাদেশে নৌযান চলাচল বন্ধ, বিপাকে যাত্রীরা

মঙ্গলবার রাত ১২টা থেকে নৌযান শ্রমিকদের ৬টি সংগঠনের জোট `নৌযান শ্রমিক ফেডারেশনের’ ডাকে ধর্মঘট শুরু হয়

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০১৯, ০২:১০ পিএম

সারাদেশে ১৫ দফা দাবিতে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন নৌ পরিবহন শ্রমিকরা। ফলে যাত্রীবাহী ও পণ্যবাহীসহ সকল নৌযান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) রাত ১২টা থেকে নৌযান শ্রমিকদের ৬টি সংগঠনের জোট `নৌযান শ্রমিক ফেডারেশনের’ ডাকে ধর্মঘট শুরু হয়।

এপ্রসঙ্গে নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন কেন্দ্রীয় সভাপতি শাহ আলম জানান, গত ২০ জুলাই ধর্মঘটের সিদ্ধান্ত হলেও এপর্যন্ত শ্রম অধিদপ্তর ও নৌযান মালিক সংগঠন সমঝোতার কোন উদ্যোগ নেয়নি। একারণে শ্রমিকরা ধর্মঘট পালনে অটল সিদ্ধান্তে আছেন।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রেজাউল করিম ভুঁইয়া ঢাকা ট্রিবিউনকে বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শ্রমিকরা কর্মবিরতি পালন করছেন। এজন্য সদরঘাটে তাদের উপস্থিতিও লক্ষ্য করা যায়নি।

প্রসঙ্গত, ১৫ এপ্রিল বেতন বাড়ানোসহ ১৫ দফা দাবিতে ধর্মঘট শুরু করে পরিবহণ শ্রমিকরা। এসময় শ্রমিক অধিদপ্তর, মালিক ও শ্রমিক পক্ষ ত্রিপাক্ষীয় বৈঠক করে দাবিগুলো বাস্তবায়নে ৪৫ দিনের সময় নেয় নৌযান মালিকপক্ষ। তাদের আশ্বাসে ওইদিন ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়। তবে গত ২৬ জুন দাবি বাস্তবায়নের নির্ধারিত সময় শেষ হয়ে গেলেও এবিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত আসেনি। 

গত ১০ জুলাই নৌ পরিবহনমন্ত্রী আরও পাঁচদিন সময় নেন, এরপর ১৫ জুলাই পেরিয়ে গেলেও কোনো সমাধান আসেনি।

১৫ দফার মধ্যে অন্যতম দাবিগুলো হলো, বেতনভাতা বৃদ্ধি করে যুগোপযোগী করা, সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ, নৌযান শ্রমিকদের হামলার বিচার, নৌপথে চাঁদাবাজি বন্ধ, মেরিন আইনের যথাযথ বাস্তবায়ন এবং মৃত নৌযান শ্রমিকদের ১০ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ।

About

Popular Links