Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

এলজিআরডি মন্ত্রী: এডিস মশা ও ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণকে সরকার চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছে

'দুর্যোগ ও সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলা এবং মানবিক সহায়তাসহ যেকোনো প্রতিকূল পরিবেশে দেশের জনগণের নিরাপত্তায় সরকার আন্তরিকভাবে অঙ্গীকারবদ্ধ'

আপডেট : ২৭ জুলাই ২০১৯, ০৮:০৩ পিএম

এডিস মশা ও ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণকে সরকার চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী (এলজিআরডি) তাজুল ইসলাম। 

শনিবার কুমিল্লার কোটবাড়িতে বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমির ৫২তম বার্ষিক পরিকল্পনা সম্মেলনের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে এ কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, "এডিস মশা ও ডেঙ্গু রোগ নিয়ন্ত্রণকে সরকার চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়ে কাজ করছে। ডেঙ্গু ও বন্যায় আক্রান্ত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে সরকার। দুর্যোগ ও সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলা এবং মানবিক সহায়তাসহ যেকোনো প্রতিকূল পরিবেশে দেশের জনগণের নিরাপত্তায় সরকার আন্তরিকভাবে অঙ্গীকারবদ্ধ।"

"ঢাকায় ডেঙ্গু আক্রান্তের পরিমাণ কমিয়ে আনতে উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও সংশ্লিষ্টরা মশানিধনে রাত-দিন কাজ করছেন। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে দেশব্যাপী মশা নিধন সপ্তাহ চলছে। জেলা, উপজেলা এবং ইউনিয়ন পর্যায়ে মশা নিধনের একর্মসূচি পালন করা হচ্ছে", যোগ করেন তিনি।

তাজুল ইসলাম আরও বলেন, "এডিস মশা ও ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে আমাদের জনসচেতনতা প্রয়োজন। ঘরের ছাদ, ফুলের টব এবং বাড়ির আঙ্গিনায় জমে থাকা পরিষ্কার বৃষ্টির পানি থেকে এডিস মশার জন্ম। জমে থাকা পানি নিষ্কাশনের মাধ্যমে এডিস মশার উৎপত্তিস্থল ধ্বংস করতে হবে। বাথরুমের কমোডে জমে থাকা পানিতেও এডিস মশা জন্মায়।" 

জনগণ সচেতন হলে এডিস মশা জন্মাবে না এবং ডেঙ্গু আক্রান্তের পরিমাণ কমে আসবে বলেও এসময় উল্লেখ করেন মন্ত্রী।

About

Popular Links