Monday, May 20, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

শোক দিবসে জন্মদিন পালন করায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটি

শোক দিবসের অনুষ্ঠান শেষে দশম শ্রেণির ১০/১২ জন শিক্ষার্থী একটি কেক এনে শিক্ষক মেজবাহ উল হক তুহিনকে সাথে নিয়ে তার জন্মদিন পালনের জন্য আনুষ্ঠানিকতা শুরু করে

আপডেট : ১৫ আগস্ট ২০১৯, ০৯:০৫ পিএম

জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলায় ধানুয়া কামালপুর কো-অপারেটিভ উচ্চ বিদ্যালয়ে জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠান শেষে শিক্ষার্থীদের নিয়ে নিজের জন্মদিন পালন করায় বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক মেজবাহ উল হক তুহিনের বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ আগস্ট) দুপুরে এঘটনা ঘটে।

ধানুয়া কামালপুর কো-অপারেটিভ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফরহাদ হোসেন বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে বিদ্যালয়ে সকাল ১০ টায় জাতীয় পতাকা উত্তোলন, শোক র‌্যালি, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, আলোচনা সভা, মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। দুই ঘণ্টাব্যাপী এসব বিভিন্ন কর্মসূচী শেষে এক পর্যায়ে দশম শ্রেণির ১০/১২ জন শিক্ষার্থী একটি কেক এনে স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক মেজবাহ উল হক তুহিনকে সাথে নিয়ে একটি শ্রেণিকক্ষে তার জন্মদিন পালন করার জন্য আনুষ্ঠানিকতা শুরু করে। 

তিনি আরও বলেন, কেক কাটার আগেই আমি বিষয়টি জানার পর সাথে সাথে জন্মদিনের অনুষ্ঠান পালনে বাধা দেই এবং ছাত্রদের বলি তোমরা নিজেরাই এই কেক খাও, আমরা শিক্ষকরা কেক খাব না। 

শিক্ষক মেজবাহ উল হক তুহিনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) দেওয়ান মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম জানান, এবিষয়ে ধানুয়া কামালপুর কো-অপারেটিভ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কাছে বিষয়টির ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে এবং সহকারী কমিশনার (ভূমি) সাঈদা পারভীনকে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হচ্ছেন উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার তাহমিনা আক্তার ও পরিসংখ্যান কর্মকর্তা রাফিউল হাসান। 

তদন্ত করে প্রকৃত ঘটনা জানান পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও ইউএনও জানান।

About

Popular Links