Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ডেঙ্গুতে আরও ২ জনের মৃত্যু, নতুন রোগীর সংখ্যা কমছে

আগের ২৪ ঘণ্টায় নতুন ডেঙ্গু রোগী ছিল ১,৭১৯ জন এর আগের দিন এ সংখ্যা ছিল ১,৮৮০ জন

আপডেট : ১৭ আগস্ট ২০১৯, ০৯:১৩ পিএম

নতুন করে এডিস মশাবাহী ডেঙ্গু রোগে আক্রান্তের সংখ্যা হ্রাস পাচ্ছে। শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ১,৪৬০ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। আগের ২৪ ঘণ্টায় এ সংখ্যা ছিল ১,৭১৯ জন।

শনিবার (১৭ আগস্ট) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে প্রাপ্ত তথ্যে এসব পরিসংখ্যান জানা গেছে বলে ইউএনবি'র একটি খবরে বলা হয়েছে।

এদিকে, ডেঙ্গুজ্বরের শিকার হয়ে ঢাকা ও ফরিদপুরে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক নারী মারা যান। মৃত মনোয়ারা বেগম (৪৫) কিশোরগঞ্জের মিঠামইন উপজেলার চমকপুর গ্রামের সাইফুল ইসলামের স্ত্রী।

সাইফুল জানান, ১০ দিন আগে মনোয়ারার ডেঙ্গু ধরা পড়ার পর তাকে কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাকে ১৩ আগস্ট ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরের পর শনিবার সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে তিনি নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) মারা যান।

এছাড়া ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সকালে সুমন বাশার রাজ (১৮) নামে এক কলেজছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। তিনি মাগুরার চাঁদপুর গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে ও মাগুরা সরকারি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিলেন।

ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান বুলু জানান, ১২ আগস্ট বিকালে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে সুমন তাদের হাসপাতালে ভর্তি হয়। শনিবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

সুমনের বাবা মিজানুর জানান, ৮ আগস্ট রক্ত পরীক্ষার পর সুমনের ডেঙ্গু ধরা পড়ে। ওই দিনই তাকে মাগুরা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাকে ফরিদপুর মেডিকেলে আনা হয়।

এদিকে, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশের বিভিন্ন হাসপাতালে নতুন করে ১,৪৬০ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন। এদের মধ্যে ঢাকা শহরে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৬২১ জন।

আগের ২৪ ঘণ্টায় নতুন ডেঙ্গু রোগী ছিল ১,৭১৯ জন। তার আগে এ সংখ্যা ছিল ১,৮৮০ জন। বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৭,৮৫৬।

About

Popular Links