Sunday, May 19, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

এফআর টাওয়ারের নকশা জালিয়াতি মামলায় ভবন মালিকের জামিন

রবিবার (১৮ আগস্ট) রাজধানীর সেগুনবাগিচা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে, গত ২৫ জুন নকশা জালিয়াতির মাধ্যমে অবৈধভাবে ১৬তলা থেকে ২৩তলা ভবন নির্মাণের অভিযোগে এফআর টাওয়ারের মালিক, রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) দুই চেয়ারম্যানসহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে পৃথক দু’টি মামলা করে দুদক

আপডেট : ১৯ আগস্ট ২০১৯, ০৭:২৯ পিএম

বনানীর এফআর (ফারুক-রূপায়ন) টাওয়ারের নকশা জালিয়াতির অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় ভবনটির অন্যতম মালিক, কাসেম ড্রাইসেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) তাসভীর-উল-ইসলামকে জামিন দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (১৯ আগস্ট) বিকালে ঢাকার সিনিয়র স্পেশাল জজ কে এম ইমরুল কায়েশ শুনানি শেষে এআদেশ দেন। এর আগে দুপুরে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের উপ-পরিচালক আবু বকর সিদ্দিক মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করে তাকে আদালতে হাজির করেন।

আবেদনে তিনি উল্লেখ করেন, গ্রেফতার আসামিকে জামিন দিলে মামলার আলামত নষ্ট হতে পারে। সাক্ষীদের ভয়-ভীতি প্রদানসহ অবৈধভাবে মামলা প্রভাবিত করার আশঙ্কা থাকায় জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করা হয়। আসামিপক্ষের আইনজীবী এহসানুল হক সমাজী জামিনের আবেদন করেন। রাষ্ট্রপক্ষে দুদকের আইনজীবী মোশারফ হোসেন কাজল ও জাহাঙ্গীর আলম জামিনের বিরোধিতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক জামিন নামঞ্জুর করেন।


আরও পড়ুন: এফআর টাওয়ারের জমির মালিক গ্রেফতার


রবিবার রাজধানীর সেগুনবাগিচা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে, গত ২৫ জুন নকশা জালিয়াতির মাধ্যমে অবৈধভাবে ১৬তলা থেকে ২৩তলা ভবন নির্মাণের অভিযোগে এফআর টাওয়ারের মালিক, রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) দুই চেয়ারম্যানসহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে পৃথক দু’টি মামলা করে দুদক। দুদকের উপ-পরিচালক আবু বকর সিদ্দিক বাদী হয়ে দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয় ঢাকা-১ এ মামলা দু’টি দায়ের করেন।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ২৮ মার্চ এফআর টাওয়ারে আগুনের ঘটনায় ২৬ জন নিহত হন। এরপর ভবনটি নির্মাণে ত্রুটি, নকশা জালিয়াতি, অনিয়ম ও দুর্নীতির অনুসন্ধানে নামে দুদক।

About

Popular Links