Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু-প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাঙচুর, ছাত্রলীগের ৩ নেতা গ্রেপ্তার

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার দিবস পালন করা নিয়ে তুষার কিবরিয়ার গ্রুপের ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের সঙ্গে ফাইন গ্রুপের নেতাকর্মীদের বাকবিতণ্ডা হয়।

আপডেট : ২৪ আগস্ট ২০১৯, ০৬:৩৩ পিএম

রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে দুই হলে হামলা এবং বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাঙচুরের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সাবেক সদস্য ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগ নেতা ফয়সাল আজম ফাইনসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। 

শনিবার (২৪ আগস্ট) বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার অপর দু'জন হলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজম্যান্ট বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী সুব্রত ঘোষ ও ফিরোজ মিয়া। ফিরোজ স্থানীয় সর্দারপাড়ার বাসিন্দা ও ফাইনের সহযোগী বলে পুলিশ জানায়।

এদিকে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপ বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে পাল্টাপাল্টি শোডাউন করে। তারা প্রকাশ্যই অস্ত্র নিয়ে মহড়া দেয় বলে সাধারণ শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানিয়েছে, রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় তিন বছর আগে তুষার কিবরিয়াকে সভাপতি ও নোবেল শেখকে সাধারণ সম্পাদক করে ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। কিন্তু তিন বছরেও পুর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করতে পারেনি ওই কমিটি। এদিকে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য ও বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতা ফয়সাল আজম ফাইনের নেতৃত্বে একটি গ্রুপ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কমিটি বাতিল করে নয়া কমিটি গঠনের দাবিতে বিক্ষোভ সড়ক অবরোধসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছিলেন। এতে ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগ দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়ে। ফাইনের নেতৃত্বে একটি গ্রুপ, অপরদিকে সভাপতি তুষার কিবরিয়ার নেতৃত্বে অপর একটি গ্রুপ তৈরি হয়। 

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার দিবস পালন করা নিয়ে তুষার কিবরিয়ার গ্রুপের ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের সঙ্গে ফাইন গ্রুপের নেতাকর্মীদের বাকবিতণ্ডা হয়। পরে তা সংঘর্ষে রুপ নেয়। ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে সেদিন রাতে ফাইন গ্রুপের কর্মীরা ছুরি-রামদাসহ বিভিন্ন অস্ত্র নিয়ে ক্যাম্পাসে মহড়া দেয়। তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল ও শহীদ মুখতার এলাহী হলে হামলা চালিয়ে ভাঙচুরসহ বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাঙচুর করে বলে অভিযোগ তুষার কিবরিয়ার গ্রুপের নেতা কর্মীদের। 

এঘটনায় ২৩ আগস্ট তাজহাট থানায় একটি মামলা দায়ের করেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ সভাপতি তুষার কিবরিয়া। এ মামলায় ফয়সাল আজম ফাইনকে প্রধান আসামি করে নয়জনের নাম উল্লেখ করা হয়। অজ্ঞাতনামা আরও কয়েকজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন তিনি। 

এদিকে তিন নেতাকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে শনিবার দুপুর সোয়া ২টার দিকে ফাইন গ্রুপের সমর্থকরা ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করে। পরে পুলিশ এসে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। অন্যদিকে তিনটার দিকে ছাত্রলীগ সভাপতি তুষার কিবরিয়ার সমর্থকরা ক্যাম্পাসে পাল্টা বিক্ষোভ মিছিল করে। 

তাজহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ রোকনুজ্জামান বলেন,  বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ সভাপতি তুষার কিবরিয়ার দায়েরকৃত বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাঙচুরের মামলায় তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।


About

Popular Links