Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ভিজিএফের চাল পেলেন প্রবাসী ও মৃতব্যক্তিরা!

তালিকায় নাম থাকা বেশ কয়েকজন প্রভাবশালী ব্যক্তির দাবি, তাদের নামে অন্য কেউ ভিজিএফের এসব চাল উঠিয়ে নিচ্ছে

আপডেট : ২৬ আগস্ট ২০১৯, ০৮:৩৪ পিএম

যশোরের চৌগাছা উপজেলার নরায়ণপুর ইউনিয়নে ভিজিএফের চাল পেয়েছেন অস্ট্রেলিয়া ও জাপানপ্রবাসীরা। 

রবিবার (২৫ আগস্ট) ভিজিএফের চাল বিতরণ করা হয়। এ তালিকায় কয়েকজন মৃত ব্যক্তির নামও রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে বেশ তোলপাড় শুরু হয়েছে। 

তবে ইউপি চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন মুকুল দাবি করছেন, “রবিবার ভিজিএফের চাল বিতরণ করা হয়। ধনীদের মাঝে চাল বিতরণ করা হয়নি। খুব শিগগির তালিকা সংশোধন করে দরিদ্রদের নাম অন্তর্ভুক্ত করে তাদের মাঝে চাল বিতরণ করা হবে।”

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, চৌগাছা উপজেলার নারায়ণপুর ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের তিন গ্রামের বাসিন্দাদের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ভিজিএফের এই চাল গত ঈদের আগে বিতরণ হয়নি। বিভিন্ন গণমাধ্যমে এ সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর ২৫ আগস্ট ওই ওয়ার্ডের ৮৩০ পরিবারের মধ্যে ভিজিএফের চাল বিতরণ করা হয়। 

গত ২৫ জুলাই উপ-নির্বাচনে বিজয়ী ইউপি সদস্য ইউসূফ আলী সাবেক ইউপি সদস্যের করা ভিজিএফএর তালিকা নিয়ে আপত্তি জানালে ঈদের আগে চাল বিতরণ বন্ধ করে দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও)। 

বিতরণকৃতদের তালিকায় নাম রয়েছে নারায়ণপুর গ্রামের মৃত জালাল মিয়ার ছেলে রফিকুল ইসলামের। তিনি নারায়ণপুর বাজারে তিনতলা একটি ভবনের মালিক। সেখানে গ্রামীণ ব্যাংক ও কৃষি ব্যাংকের নারায়ণপুর শাখা অফিস রয়েছে। এছাড়া মৃত নুর আলী মুন্সির ছেলে সামসুল মুন্সি ও মোবারক সর্দারের ছেলে মনিরুল ইসলামেরও রয়েছে দৃষ্টিনন্দন বাড়ি। তাদের বাড়িতে চাল উত্তোলনের টোকেন পৌঁছে দেন ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত নারী সদস্য রাবেয়া খাতুন। 

সূত্র জানায়, তালিকায় থাকা নারায়ণপুর গ্রামের মৃত বায়েজিদ সর্দারের ছেলে মোমিনুর রহমান ছয়বছর আগে মারা গেছেন। একই গ্রামের মৃত ওহেদ আলীর ছেলে আব্দুল হালিম দুই বছর আগে মারা যান। তালিকায় তাদের নাম থাকায় গ্রামের লোকজন ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। 

একইগ্রামের মিজানুর রহমান, বাবর আলী, আমিনুর রহমান, শাহিনুর রহমান সকলেই এলাকায় ধনী হিসেবে পরিচিত। তাদের দাবি, তাদের নামে অন্য কেউ ভিজিএফের এসব চাল উঠিয়ে নিচ্ছে।

এ বিষয়ে ইউপি চেয়াম্যান জয়নাল আবেদীন মুকুল বলেন, “শুনেছি, তালিকায় বেশ কয়েকজন ধনী মানুষের নাম রয়েছে। খুব শিগগির তালিকা সংশোধন করে সেখানে দরিদ্রদের নাম অন্তর্ভুক্ত করা হবে।”

চৌগাছা উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ইশতিয়াক আহমেদ বলেন, “বিষয়টি আমার কানেও এসেছে। ইউপি চেয়ারম্যানের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

About

Popular Links