Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

রাজধানীতে ছিনতাই করতে গিয়ে গণপিটুনির শিকার পুলিশ কনস্টেবল

পুলিশ কনস্টেবল আল মামুন বংশাল থানায় কর্মরত রয়েছেন বলে জানিয়েছেন ওই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা

আপডেট : ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৮:৪০ পিএম

রাজধানীর মতিঝিলে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের সামনে এক যুবকের কাছ থেকে ১০ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের সময় বংশাল থানার এক কনস্টেবলসহ দুইজনকে পিটুনি দিয়েছে জনতা। পরে তাদের মতিঝিল থানায় সোপর্দ করা হয়।

অনলাইন গণমাধ্যম বাংলা ট্রিবিউনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বুধবার (৪ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৩টার দিকে আবুল কালাম নামে ওই যুবকের কাছ থেকে টাকা ছিনতাইয়ের চেষ্টা করা হয়।

আটক দুজন হলেন- পুলিশ কনস্টেবল আল মামুন ও জিতু।

ভুক্তভোগী আবুল কালাম জানান, তিনি ব্যবসা করেন। যমুনা ব্যাংকের মতিঝিল শাখা থেকে ১০ লাখ টাকা তুলে নিয়ে যাচ্ছিলেন। এসময় দুই ব্যক্তি তাকে বলে, ‘‘আমরা পুলিশ, আমাদের সঙ্গে তোকে যেতে হবে। গাড়িতে ওঠ, তোকে অনেক দিন ধরে খুঁজতেছি।’’

প্রত্ত্যুতরে, ‘‘আমি তো পুলিশের গাড়ি চিনি। এটা পুলিশের গাড়ি না,’’ বললে তাকে হেলমেট দিয়ে আঘাত করা হয়। এতে তার মাথা ফেটে যায়।

প্রত্যক্ষদর্শী এক পথচারী বলেন, ‘‘ব্যবসায়ীর মাথা ফেটে যাওয়ার পর পথচারীরা সবাই এসে লোক অভিযুক্তদের আটক করে। এরপর তাদের মতিঝিল থানায় তাদের সোপর্দ করা হয়। দুইজনের মধ্যে একজন নিজেকে পুলিশ বলে পরিচয় দেয়। তার মোটরসাইকেলেও পুলিশ লেখা ছিল।’’

মতিঝিল থানার পরিদর্শক (অপারেশন) রফিকুল ইসলাম জানান, আটক ব্যক্তিদের মধ্যে একজন পুলিশ। দুই পক্ষকেই থানায় রাখা হয়েছে। টাকাও থানায় আছে। চিকিৎসার জন্য সবাইকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। হাসপাতাল থেকে আসার পর আসল ঘটনা জানা যাবে।

ছিনতাইয়ের সময় তাদের সঙ্গে থাকা মোটরসাইকেলটি (ঢাকা মেট্রো ল-২৪-৩৬৯৯) জব্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এর সামনে ‘পুলিশ’ লেখা রয়েছে।

পুলিশ কনস্টেবল আল মামুন বংশাল থানায় কর্মরত রয়েছেন বলে জানিয়েছেন ওই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহীন ফকির। তিনি বলেন, ‘‘আল মামুন গাড়িচালক। সে মোবাইল পেট্রোল গাড়ি চালায়। মঙ্গলবার রাতে সে ডিউটি করে। তাই দিনে তার বিশ্রাম ছিল। দিনে সে কোথায় ছিল, সে আমাকে কিছু জানায়নি।’’ তিনি ঘটনাটি শুনেছেন বলে জানান।

শাহীন ফকির বলেন, ‘‘সে যদি সন্ধ্যায় ডিউটিতে না আসে, তাহলে তাকে আমি অনুপস্থিত হিসেবে রিপোর্ট দেবো।’’ এ ঘটনার সঙ্গে তার সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

About

Popular Links