Sunday, May 19, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

তথ্যমন্ত্রী: মুক্তিযুদ্ধে কলকাতার সাংবাদিকদের ভূমিকা চিরস্মরণীয়

‘বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় প্রায় ১ কোটি মানুষ ভারতে আশ্রয় নিয়েছিলো। আর কলকাতার সাংবাদিকবৃন্দ যে সাহসিকতার সাথে যুদ্ধের সংবাদ সংগ্রহ ও পরিবেশন করেছেন, ইতিহাসে তা স্বর্ণাক্ষরে লেখা রয়েছে’

আপডেট : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১১:২১ এএম

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধে কলকাতার সাংবাদিকদের অসীম সাহসী ভূমিকা চিরস্মরণীয়।

শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কলকাতা প্রেসক্লাব মিলনায়তনে ‘বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ : কলকাতার সাংবাদিকরা ও প্রেস ক্লাব কলকাতা’ গ্রন্থের ওপর প্রেসক্লাব আয়োজিত বিশেষ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী একথা বলেন। ঢাকায় প্রাপ্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এখবর জানা যায় বলে জানায় বাসস।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, “বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় প্রায় ১ কোটি মানুষ ভারতে আশ্রয় নিয়েছিলো। ভারতীয় সৈন্যরা যখন তৎকালীন পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে বাংলাদেশে প্রবেশ করে, তখন বাংলাদেশের মানুষ ছিলো উল্লসিত।”

উপমহাদেশের সর্বপ্রাচীন প্রেসক্লাব হিসেবে কলকাতা প্রেস ক্লাবের ৭৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে তাদের অভিনন্দন জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, “ইতিহাস যেনো হারিয়ে না যায়, সেজন্য ইতিহাসের সাক্ষী এই বর্ষীয়ান সাংবাদিকবৃন্দের কথন সংগ্রহে রাখা একান্ত জরুরি। ‘বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ : কলকাতার সাংবাদিকরা ও প্রেসক্লাব কলকাতা’ গ্রন্থটি সেই কাজটিই করেছে।” 

ইতিহাসের প্রয়োজনে গ্রন্থটির দ্বিতীয় সংস্করণ প্রকাশে সার্বিক সহায়তার আশ্বাস দেন ড. হাছান মাহমুদ।

অন্যদিকে, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উদযাপন উপলক্ষ্যে বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশভিত্তিক চিত্রকর্ম প্রদর্শনী আয়োজনের জন্য উপহাইকমিশন ও আইসিসিআর’কে ধন্যবাদ জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, “যতদিন বাংলাদেশ থাকবে, ততদিন বাংলাদেশের মানুষ তাদের মুক্তিযুদ্ধে কলকাতা তথা ভারতের অবদান কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করবে।”

দু’দেশের চিত্রশিল্পীদের আঁকা ৪০টি চিত্রকর্ম তিনদিনব্যাপী প্রদর্শনীতে স্থান পেয়েছে।

About

Popular Links