Friday, May 24, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ঘুমধুম সীমান্তে মাইন বিস্ফোরণে রোহিঙ্গা যুবক নিহত

ঘুমধুমের মিয়ানমার সীমান্তবর্তী ৩৯ নম্বর পিলার সংলগ্ন এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে

আপডেট : ২৯ নভেম্বর ২০১৯, ০৪:৪১ পিএম

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুমে মিয়ানমার সীমান্তে মাইন বিস্ফোরণে হামিদ হোসেন (৩০) নামের এক রোহিঙ্গা যুবক নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হয়েছেন আরও দুই রোহিঙ্গা। 

বৃহস্পতিবার (২৯ নভেম্বর) রাতে ঘুমধুমের মিয়ানমার সীমান্তবর্তী ৩৯ নম্বর পিলার সংলগ্ন এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত হামিদ উখিয়ার কুতুপালং ক্যাম্পের বাসিন্দা। আহতরা হলেন- একই ক্যাম্পে হাবিব উল্লাহ ও জুয়েল হক। তাদের উখিয়ার এমএসএফ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘুমধম পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইমন চৌধুরী ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘‘ঘুমধুম সীমান্তে মাইন বিস্ফোরণে এক রোহিঙ্গা মারা গিয়েছে বলে শুনেছি। হতাহত সবাইকে উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, রাতের আঁধারে সীমান্ত পার হয়ে আসা-যাওয়া করছিল তারা। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত আহতদেরকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’’

উখিয়া কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মাঝি মোহাম্মদ ইদ্রিস জানিয়েছেন, “রোহিঙ্গারা যাতে ফিরে যেতে না পারে, সেজন্য সীমান্তে স্থলমাইন পুঁতে রেখেছে মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিজিপি)। ওই মাইন বিস্ফোরণে আমাদের ক্যাম্পের এক যুবক নিহত হয়েছে। মরদেহ উদ্ধার করে ক্যাম্পে নিয়ে আসা হয়েছে। ঘটনাটি বাংলাদেশ পুলিশকে জানানো হয়েছে।”

তবে ওই যুবক কেন সীমান্তে গিয়েছিল তা জানেন না বলে দাবি করেন তিনি।

About

Popular Links