Sunday, June 16, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মায়ের চিকিৎসার টাকা চাইতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার তরুণী

রবিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) সকালে ভোলার চরফ্যাশন উপজেলায় তরুণীটিকে ট্রলারে আটকে রেখে এ গণধর্ষণের ঘটনা ঘটে

আপডেট : ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৫:১১ পিএম

ভোলার চরফ্যাশন উপজেলায় ২২ বছরের এক তরুণীকে ট্রলারে আটকে রেখে গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এসময় কোস্টগার্ডের একটি টিম মেয়েটিকে উদ্ধার করে অভিযুক্ত পাঁচজনকে আটক করে।

রবিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) সকালে আটক ব্যক্তিদেরকে ভোলার দক্ষিণ আইচা থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

তারা হলেন- উপজেলার দক্ষিণ আইচা ৬নং ওয়ার্ডের খলিল মিয়ার ছেলে ইউছুফ হাসান সরদার (২০), দক্ষিণ আইচা ৫নং ওয়ার্ডের হাকিম দালালের ছেলে সোহেল রানা দিদার (২০), চর মানিকা ৩নং ওয়ার্ডের মোকাম্মেল সিকদারের ছেলে ওয়াসেল আহম্মদ সিকদার (২০), চরকচ্ছপিয়া ৪নং ওয়ার্ডের ইসমাঈল ফকিরের ছেলে রিপন ফকির (২০), একই গ্রামের আবুল কাশেম হাওলাদারের ছেলে মোরশেদ হাওলাদার (৩৫)।

দক্ষিণ আইচা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিলন কুমার ঘোষ বলেন, “শনিবার রাতে চর কুকরী মুকরী নারিকেল বাগানের কাছে একটি ভাসমান ট্রলার দেখতে পেয়ে কোস্টগার্ডের টহল টিমের সন্দেহ হয়। পরে ওই তরুণীর চিৎকারে টহলরত কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়। পাঁচ ধর্ষককে আটক করে থানায় হস্তান্তর করে কোস্টগার্ডের ওই দলটি।”

তিনি আরও জানান, “ভুক্তভোগীর শিকারোক্তি থেকে জানা যায় আসামি সোহেল রানা সিকদারের সাথে ওই তরুণীর মোবাইলে কথা হতো। শনিবার ওই তরুণী তার মায়ের চিকিৎসার জন্য সোহেলের কাছে টাকা চান। সোহেল তাকে টাকা নিতে আসতে বলে। তিনি টাকা নিতে আসলে সোহেল ও বাকি চার আসামি তাকে জোরপূর্বক একটি ট্রলারে উঠিয়ে কুকরী মুকরীর নারিকেল বাগানের কাছে নিয়ে গণধর্ষণ করে।”

আটক ব্যক্তিদের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণের প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান এ কর্মকর্তা।

About

Popular Links