• বুধবার, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:১৮ রাত

‘গুজব’ বলে লন্ডনেই গেলেন মির্জা ফখরুল

  • প্রকাশিত ১১:৫৫ সকাল জুন ১০, ২০১৮
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ফাইল ফটো

বিএনপির মহাসচিব গত ৩ জুন ব্যাংকের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করেন। একইদিন থাইল্যান্ডে উড়াল দেন স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

সংবাদপত্রে প্রকাশিত লন্ডনযাত্রার খবরকে গত ২ জুন ‘গুজব’ বলেছিলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ওই দিন ট্রিবিউনের কাছে এমন মন্তব্যের পর ঠিক একসপ্তাহের মাথায় লন্ডন গেলেন তিনি। এই প্রসঙ্গে যুক্তরাজ্য বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কয়সর এম আহমেদ শনিবার রাতে ট্রিবিউনকে বলেন, ‘গত শুক্রবারই লন্ডনে পৌঁছান মির্জা ফখরুল।’

বিএনপির মহাসচিব গত ৩ জুন ব্যাংকের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করেন। একইদিন থাইল্যান্ডে উড়াল দেন স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। ২ জুন কয়েকটি সংবাদপত্রে প্রচার হয়, মির্জা ফখরুল যাচ্ছেন লন্ডনে। ট্রিবিউনের লন্ডন প্রতিনিধিও জানিয়েছিলেন, ‘বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান তলব করেছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।’

যদিও ওইদিন ট্রিবিউনকে সংক্ষিপ্ত সাক্ষাৎকারে মির্জা ফখরুল বলেছিলেন, ‘এ রকম কোনও ব্যাপার নেই। সব গুজব চলতেছে।’

ঈদের আগে লন্ডন যাবেন কিনা—এমন প্রশ্নের উত্তরে বিএনপির মহাসচিবের উত্তর ছিল, ‘এ রকম কোনও ব্যাপার নাই তো এখন। কেননা, লন্ডন যাওয়ার তো কোনও কারণ নাই। বড়জোর আমি ব্যাংককে যেতে পারি আমার চিকিৎসার জন্য। লন্ডন যাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। চিকিৎসার জন্য আমি সিঙ্গাপুর বা ব্যাংককে যাই।’

এই প্রসঙ্গে যুক্তরাজ্য বিএনপির নেতা কয়সর এম আহমেদ বলেন, ‘রবিবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাতটায় লন্ডনের রয়েল রিজেন্সিতে এক ইফতার ও দোয়া মাহফিলে যোগ দিচ্ছেন মির্জা ফখরুল।’ তিনি এও জানান, ‘অনুষ্ঠানে তারেক রহমান প্রধান অতিথি ও মির্জা ফখরুল বিশেষ অতিথি।’

মির্জা ফখরুল কবে দেশে ফিরবেন, এ নিয়ে কোনও তথ্য জানাতে পারেননি কয়সর আহমেদ।