• বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৯ রাত

ঢাবির ছাত্রলীগ কর্মী বহিষ্কার

  • প্রকাশিত ১২:২৩ দুপুর জুলাই ১৬, ২০১৮
dhaka-university-logo-m-1531721950882.jpg

‘একজন শিক্ষার্থীকে আরেকজন শিক্ষার্থীর আইডি কার্ড চেক করার অধিকার কে দিয়েছে?’

শনিবার (১৪ জুলাই) বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে মল চত্বরে বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী রোকেয়া গাজী লীনা ও আসাদুজ্জামান প্রান্তকে পিটিয়ে আহত করে সূর্যসেন হল ছাত্রলীগের একদল নেতাকর্মী। এই ঘটনায় প্রক্টর বরাবর আবেদন করলে অধ্যাপক এ কে এম গোলাম রাব্বানী রোববার (১৫ জুলাই) সন্ধ্যায় এই তিন শিক্ষার্থীকে বহিষ্কারের কথা জানান।

গোলাম রাব্বানী জানান,“অর্থনীতি বিভাগের ওই শিক্ষার্থীদের লিখিত অভিযোগের পর সিসিটিভি ফুটেজে অভিযুক্তদের শনাক্তকরণের প্রেক্ষিতে এবং দৈনিক পত্রিকার রিপোর্ট বিবেচনা করে সংঘটিত অপ্রীতিকর ঘটনায় প্রাথমিক তদন্তের ভিত্তিতে তিনজনকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন জমার পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।”

শাস্তির আবেদনে শিক্ষার্থীরা জানান, “আমার ক্যাম্পাসে আমি ঘুরব, সেজন্য আইডি কার্ড দেখাতে হবে কেন? আর একজন শিক্ষার্থীকে আরেকজন শিক্ষার্থীর আইডি কার্ড চেক করার অধিকার কে দিয়েছে?

প্রক্টর জানান, “হামলায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় আনা হবে। ইতোমধ্যে কাজ শুরু হয়ে গেছে। জড়িত কেউ ছাড় পাবে না। আমরা সিসিটিভি ফুটেজ ধরে জড়িতদের বিচার করব। হলের তিন সদস্যের তদন্ত কমিটিকেও দ্রুততম সময়ের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।”

বহিষ্কৃতরা হলেন- সূর্যসেন হল শাখা ছাত্রলীগের সদস্য এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র মোল্লা মোহাম্মআল ইমরান পলাশ,ইংলিশ ফর স্পিকারস অব আদার ল্যাঙ্গুয়েজেস (ইসোল) বিভাগের মাহমুদ অর্পন এবং উইমেন এন্ড জেন্ডার স্টাডিজ বিভাগের সিফাত উল্লাহ।