• বুধবার, জুন ২৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪১ দুপুর

রংপুর পুলিশের ‘নো হেলমেট নো পেট্রোল’ কর্মসূচী

  • প্রকাশিত ০৬:৩০ সন্ধ্যা সেপ্টেম্বর ২, ২০১৮
নো হেলমেট নো পেট্রল
পেট্রল পাম্পে মোটরসাইকেল আরোহীকে হেলমেট পড়িয়ে দিচ্ছেন পুলিশ কর্মকর্তা। ছবিঃ ঢাকা ট্রিবিউন

রংপুর নগরীর পেট্রোল পাম্প গুলোতে পুলিশ মোতায়েন ও চেক পোষ্ট বসিয়ে অভিযান।

বিভাগীয় নগরী রংপুরে পুলিশ ঘোষণা দিয়েছে ‘নো হেলমেট নো পেট্রোল’ অর্থাৎ মোটরসাইকেল চালকরা হেলমেট না পড়লে তাদের কাছে পেট্রোল পাম্প কর্তৃপক্ষ কোন পেট্রোল বা অকটেন বিক্রি করবেনা। 

শুধু তাই নয় নগরীর প্রতিটি পেট্রোল পাম্পে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ‘রি-ফিউয়েলিং পাম্প’ ছাড়াও বিভিন্ন স্থানে বসানো হয়েছে চেকপোস্ট।

পুলিশের এই ঘোষণায় নগরবাসির মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া থাকলেও বেশিরভাগ সাধারণ মানুষই পুলিশের এ অভিযান এবং উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন। 

পুলিশ জানায় দুর্ঘটনা থেকে মোটরসাইকেল চালকদের রক্ষা করার উদ্দেশ্যে ও হেলমেট পড়তে বাধ্য করার জন্য রংপুরের পুলিশ প্রশাসন ‘নো হেলমেট নো পেট্রোল’ কর্মসূচি শুরু করেছে। 

শনিবার সন্ধ্যায় রংপুর পুলিশ সুপার কার্যালয়ে পেট্রোল পাম্প মালিক সমিতির সাথে পুলিশ প্রশাসনের এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। হেলমেট ছাড়া কোন মটর সাইকেল চালকের কাছে পেট্রোল পাম্প তেল বিক্রি করবে না বলে সর্ব সম্মত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। 

আজ রোববার সকাল থেকে এ কর্মসূচী কার্যকর করা হচ্ছে।

পেট্রোল পাম্পের ম্যানেজার আবুল কালাম জানিয়েছেন, পুলিশ প্রশাসন নির্দেশ দিয়েছে হেলমেট ছাড়া কোন মোটরসাইকেল চালকের কাছে পেট্রোল বা অকটেন বিক্রি করা যাবেনা। এ নির্দেশ মেনেই পেট্রোল বিক্রি করছেন বলে জানান তিনি। 

পুলিশ সদস্যরা জানান তাদের উপর নির্দেশ আছে হেলমেট ছাড়া কোন মটর সাইকেল চালকের কাছে পেট্রোল বা অকটেন বিক্রি করা যাবেনা। সেখানেও বেশ কয়েকজন হেলমেট বিহিন মটর সাইকেল চালক পেট্রোল নিতে এসে ফিরে গেছে। তবে ৩/৪ জন হেলমেট ধারী মটর সাইকেল চালক তেল নিয়ে গেছেন। 

রংপুর নগরীর মর্ডান মোড় , সিও বাজার , বাস টার্মিনাল , সিও বাজার সহ বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে গেছে প্রতিটি পেট্রোল পাম্পে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। তবে নগরীর বেশ কিছু এলাকায় হেলমেট বিহিন মটর সাইকেল চলতে দেখা গেছে।

রংপুর জেলা পেট্রোল পাম্প মালিক সমিতির সভাপতি মোস্তাফা সোহরাব টিটো জানান শনিবার জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে আমাদের সাথে বৈঠক হয়েছে। সেখানে হেলমেট ছাড়া কারো কাছে পেট্রোল বিক্রি না করার অনুরোধ করা হয়েছে। আমরা তাদের আহবানে সাড়া দিয়েছি আজ থেকে হেলমেট ছাড়া কারো কাছে পেট্রোল বিক্রি করছিনা।

‘নো হেলমেট নো পেট্রোল’ কর্মসূচির উদ্যাক্তা রংপুর এ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাইফুর রহমান জানান, “আমরা কয়েকদিন ধরে প্রচারনা চালাচ্ছি হেলমেট ছাড়া মটর সাইকেল চালাবেন না। কারণ আমরা অনুসন্ধান করে দেখেছি হেলমেট ছাড়া মটর সাইকেল চালালে দুর্ঘটনা ঘটলেই চালক মারা যায়। দুর্ঘটনা রোধ করতে আমরা সচেতন করার চেষ্টার করছি বেশ কয়েকদিন ধরে। ইতিমধ্যে আমরা পেট্রোল পাম্প মালিকদের সাথে কথা বলেছি তাদের অনুরোধ করা হয়েছে হেলমেট ছাড়া পেট্রোল বিক্রি করা যাবেনা।” 

তিনি আরো বলেন, “রংপুর নগরীর বিভিন্ন এলাকায় চেক পোষ্ট বসিয়ে অভিযান চলছে যতদিন পর্যন্ত সফল হবোনা আমাদের অভিযান চলবে।”