• মঙ্গলবার, এপ্রিল ০৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:২৮ রাত

হেলমেটবিহীন আওয়ামী লীগ নেতার কীর্তি

  • প্রকাশিত ০১:০৭ দুপুর সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৮
পুঠিয়া ফিলিং স্টেশন
রাজশাহীতে হেলমেটবিহীন এক আওয়ামী লীগ নেতাকে তেল না দেওয়ায় ঐ নেতা পাম্পের তেল বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছেন। ছবি: সংগৃহীত।

যাওয়ার আগে তিনি আমাদের হুমকি দিয়ে যান কারো কাছে তেল বিক্রি করলে পাম্প জ্বালিয়ে দেয়া হবে। পরে বিষয়টি পাম্প মালিকস্থানীয় থানা ও উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করা হয়েছে’।

রাজশাহীতে হেলমেটবিহীন এক আওয়ামী লীগ নেতাকে তেল না দেওয়ায় ঐ নেটা পাম্পের তেল বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছেন বলে সময় নিউজের একটি খবরে বলা হয়েছে। বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলা সদরের পশ্চিম পাশে পুঠিয়া ফিলিং স্টেশনে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে।    

তেল পাম্প ম্যানেজার অলক কুমার সরকারের ভাষ্য থেকে জানা যায়, পুঠিয়ায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পালোপাড়া হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক আব্দুল মালেক মোটরসাইকেলে তেল নিতে আসেন। ওই সময় তার কাছে কোনো হেলমেট না থাকায় একজন বিক্রয়কর্মী তাকে তেল দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে সেখান থেকে চলে যান। কিছুক্ষণ পর তিনি ফিরে এসে নিজে দাঁড়িয়ে থেকে সেখানকার কর্মচারীদের দিয়ে পাম্পের সামনে দড়ি বেঁধে পাম্পটি বন্ধ করে দিয়ে চলে যান।

এপ্রসঙ্গে ম্যানেজার অলক কুমার সরকার বলেন, ‘যাওয়ার আগে তিনি আমাদের হুমকি দিয়ে যান কারো কাছে তেল বিক্রি করলে পাম্প জ্বালিয়ে দেয়া হবে। পরে বিষয়টি পাম্প মালিক, স্থানীয় থানা ও উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করা হয়েছে’।

এরপর থেকে পাম্পে তেল বিক্রি বন্ধ রেখেছে কর্তৃপক্ষ। স্থানীয় একজন বলেন, ‘পাম্পের তেল বিক্রি বন্ধ করে দেয়ার কিছুক্ষণ পরপর ওই নেতার লোকজন পাম্পের সামনে থেকে দেখে যাচ্ছে তেল বিক্রি হচ্ছে কিনা’।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি হেলমেটবিহীন কোনো মোটরসাইকেলে তেল দেয়ায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে পুলিশ। এর প্রেক্ষিতেই ঐ নেতাকে তেল দিতে অস্বীকৃতি জানান পাম্পের কর্মীরা। পাম্পের সামনে এ সংক্রান্ত একটি ব্যানারও ঝুলানো আছে। 

এদিকে, হঠাৎ করে পাম্পে তেল বিক্রি বন্ধ থাকায় শত শত যানবাহন তেল নিতে এসে হয়রানির শিকার হচ্ছে বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। 

পুঠিয়া থানার কর্মকর্তা রাকিবুল হাসান  এ প্রসঙ্গে বলেন,  ‘হেলমেটবিহীন মোটরসাইকেলে তেল না দেওয়ায় উভয়পক্ষের মধ্যে কথা-কাটাকাটির ঘটনাকে কেন্দ্র করে একটি তেল পাম্প বন্ধ রয়েছে বলে আমি শুনেছি’। তিনি সন্ধ্যার পর বিষয়টি সুরাহা করা হবে বলেও জানান। 

তবে অভিযুক্ত আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মালেকের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।