• মঙ্গলবার, অক্টোবর ২২, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৮:২০ রাত

পুলিশি নিরাপত্তায় হত্যা মামলার আসামীর সমাবেশ

  • প্রকাশিত ০১:২৫ দুপুর সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৮
আমীর আলী গাইন
নিজের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে হত্যা মামলার আসামী খুলনার কয়রা উপজেলার ১নম্বর আমাদি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আমীর আলী গাইন গত সোমবার পুলিশ নিরাপত্তায় মিছিল সমাবেশ করেছেন। ছবি : ঢাকা ট্রিবিউন।

জেলার আমাদি বাজারে অনুষ্ঠিত এ সমাবেশ ও মিছিলে অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান আমীর আলী গাইন নিজেই নেতৃত্ব দেন।

নিজের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে হত্যা মামলার আসামী খুলনার কয়রা উপজেলার ১নম্বর আমাদি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আমীর আলী গাইন গত সোমবার পুলিশ প্রটোকলে মিছিল সমাবেশ করেছেন। উল্লেখ্য, এসময় মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস আই সাঈদ আল মামুনসহ স্থানীয় থানা ও ক্যাম্পের ২৪ জন পুলিশ সদস্য উপস্থিত থাকলেও তাকে গ্রেফতারের কোন উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। 

জেলার আমাদি বাজারে অনুষ্ঠিত এ সমাবেশ ও মিছিলে অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান আমীর আলী গাইন নিজেই নেতৃত্ব দেন।

জানা গেছে, আমাদি বাজারে সমাবেশস্থলে কয়রা থানার এসআই আসাদ, এসআই জমির উদ্দিন, এসআই আল মামুন, এএসআই খায়ের, এএসআই সামাদ, আমাদি ক্যাম্পের ইনচার্জ এএসআই হাসিব, হড্ডা ক্যাম্পের ইনচার্জসহ ১৭-১৮ জন কনস্টেবল উপস্থিত ছিলেন।

গ্রেফতার না করার কারণ জিজ্ঞাসা করলে জেলা পুলিশ সুপার এসএম শফিউল্লাহ বলেন, ‘মামলাটি সিআইডিতে হস্তান্তরিত করা হয়েছে। যে কারণে তদন্ত কর্মকর্তা মনে করেছেন আসামি গ্রেফতারের বিষয়টি সিআইডির ওপর নির্ভর করছে। তবে, মামলা যার কাছেই থাক না কেন, পুলিশ আসামিকে গ্রেফতার করে সিআইডির কাছে হস্তান্তর করতে পারে’।

অন্যদিকে, মামলার তদন্তকারী সিআইডি কর্মকর্তা খুলনার ইন্সপেক্টর খান সরোয়ার হোসেন গত সোমবার দুপুরে মামলার তথ্যাদি হাতে পেয়েছেন বলে জানান। এসময় তিনি প্রাপ্ত তথ্যাদির ভিত্তিতে আসামিদের গ্রেফতারের উদ্যোগ নেবেন বলেও মন্তব্য করেন।

এদিকে সমাবেশস্থলে উপস্থিত থাকা কয়রা থানার এসআই সাঈদ আল মামুন বলেন, ‘মামলাটি ১৩ সেপ্টেম্বর সিআইডিতে হস্তান্তর করার কারণে আসামিকে গ্রেফতার করতে পারিনি’। এসময় তিনি বিনা অনুমতিতে সমাবেশ করায় তাদের ছত্রভঙ্গ করতে গিয়েছিলেন বলেও জানান।  

তবে, এসআই সাঈদ আল মামুন সমাবেশের সত্যতা নিশ্চিত করলেও কয়রা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তারক বিশ্বাস প্রকাশ্যে আসামির উপস্থিতিতে সমাবেশের বিষয়টি তার জানা নেই উল্লেখ করে বলেন, ‘আসামিকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে’।

এদিকে মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন প্যানেল চেয়ারম্যান প্রশান্ত কুমার বাইন। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। সমাবেশে ভ্যানের উপর দাঁড়িয়ে নিজের বক্তব্য প্রদান করেন ইউপি চেয়ারম্যান আমীর আলী গাইন।  এসময় বক্তারা ইউপি চেয়ারম্যানের নামে মামলা প্রত্যাহারের দাবী করেন। 

উল্লেখ্যপিকআপ চালক সেলিম শেখ হত্যার ঘটনায় গত ৫ সেপ্টেম্বর দায়ের করা মামলায় আমীর আলী গাইন ও তার ছেলে হাবিবুল্লাহ বাহারসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়।