• বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৪, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:৩১ রাত

দলবদলের কারণে ঢাবি ছাত্রকে মারধরের অভিযোগ

  • প্রকাশিত ০৪:৫০ বিকেল সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৮
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ফাইল ছবি)। ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন

মারধরের শিকার ওই শিক্ষার্থীর নাম অনিন্দ্য মন্ডল। তিনি দর্শন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

ছাত্রলীগ ছেড়ে ছাত্র ইউনিয়নে যোগ দেওয়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) এক শিক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে হলের সন্তোষচন্দ্র ভট্টাচার্য ভবনে এ ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে। 

এ অভিযোগ উঠেছে জগন্নাথ হল ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে। মারধরের শিকার ওই শিক্ষার্থীর নাম অনিন্দ্য মন্ডল। তিনি দর্শন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

জানা যায়, অনিন্দ্য প্রথম বর্ষে ছাত্রলীগের মাধ্যমে হলে ওঠেন। কয়েকদিন আগে তিনি ছাত্রলীগের কর্মসূচিতে যোগ না দিয়ে ছাত্র ইউনিয়নের কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছিলেন।বিষয়টি হল ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা জানার পর অনিন্দ্যের জিনিসপত্র সন্তোষচন্দ্র ভট্রাচার্য ভবনের ৫০০৫ নম্বর কক্ষে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে সেখান থেকে নিজের জিনিসপত্র আনতে গেলে অনিন্দ্যকে মারধর করা হয় এবং আটকে রাখা হয়। 

এ খবর পেয়ে ছাত্র ইউনিয়নের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাধারণ সম্পাদক রাজিব দাস সেখানে যান। তাকেও মারধর করা হয় বলে তিনি অভিযোগ করেন।

জগন্নাথ হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক অসীম কুমার সরকার জানান, ‘এই ধরনের ঘটনা কোনোভাবেই কাম্য নয়। আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখছি। দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এদিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস বলেন, “এ ঘটনার সাথে যারা জড়িত, তাদের বিরুদ্ধে অবশ্যই সাংগঠনিকভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”