• শুক্রবার, নভেম্বর ১৫, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৬ রাত

অনিয়মের অভিযোগ তোলায় চটেছেন ঢাবি প্রফেসর

  • প্রকাশিত ১২:১৫ রাত সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৮
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ফাইল ছবি)। ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন

‘আমি ওই শিক্ষার্থীকে বিয়ের কোনো প্রস্তাব বা হুমকিও দেইনি।’

কি কারণে স্নাতক ও স্নাতকোত্তরে সর্বোত্তম রেজাল্ট নিয়েও একজন প্রার্থীর আবেদনপত্র শিক্ষক নিয়োগ বোর্ড বাতিল করেছে; গত ২১ সেপ্টেম্বর শিক্ষক নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ এনে ঢাবি প্রফেসরের বিরুদ্ধে এমন এক সংবাদ প্রকাশ করা হয়।

তবে এই সংবাদকে মিথ্যা দাবী করে মনোবিজ্ঞান বিভাগের অভিযুক্ত শিক্ষক বলেন, ‘আমি প্রকাশিত এ সংবাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আমার প্রতিবাদ সম্পূর্ণ পরিষ্কার, স্বচ্ছ্ব ও সাক্ষ্যপ্রমাণ নির্ভর।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমি ওই শিক্ষার্থীকে বিয়ের কোনো প্রস্তাব বা হুমকিও দেইনি।’ 

শিক্ষক নিয়োগে তার কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই জানিয়ে তিনি বলেন, ‘নিয়োগ বোর্ডের সাথে আমার কোনো যোগাযোগই নেই। সুতরাং, নিয়োগে কোনো রকমের প্রভাব বিস্তার করা আমার জন্য অসম্ভব।’


আরও পড়ুন ঢাবি শিক্ষকের প্রস্তাব ফেরানোয় বাদ পড়লেন নিয়োগ প্রার্থী?


এই অভিযোগের কোনো ভিত্তি নেই দাবী করে ঢাবি প্রফেসর বলেন, ‘এই সংবাদগুলো আমার প্রতি ষড়যন্ত্রের প্রতিফলন। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আমার সুদীর্ঘ শিক্ষকজীবনের অর্জনকে কালীমা লেপনের উদ্দেশ্যেই এসব করা হচ্ছে।’

উল্লেখ্য যে, ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ এসেছে যে, প্রভাব খাটিয়ে ব্যক্তিগত ক্ষোভের জের ধরে শিক্ষক নিয়োগে এক প্রার্থীর আবেদন বাতিল করিয়েছেন তিনি। এই প্রার্থীকে পূর্বে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে প্রত্যাখ্যাত হয়েছিলেন এই অধ্যাপক।