• সোমবার, জানুয়ারী ২০, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪৫ রাত

স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ, পলাতক ছাত্রলীগ সভাপতি

  • প্রকাশিত ০১:২১ রাত সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৮
নিহত পিংকি রায় চৌধুরী ও অভিযুক্ত সাগর চৌধুরী
নিহত পিংকি রায় চৌধুরী ও অভিযুক্ত সাগর চৌধুরী। ছবি: সংগৃহীত

মৃতদেহ রেখে পালিয়ে যায় শশুড়বাড়ির লোকজন।

খাগড়াছড়ির গুইমারা উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সাগর চৌধুরীর স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। 

শনিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাতে মাটিরাঙা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিহত পিংকি রায় চৌধুরীর (২৫) মৃতদেহ রেখে পালিয়ে যায় শশুড়বাড়ির লোকজন। ঘটনার পর থেকে সাগর চৌধুরী পলাতক রয়েছে। 

মাটিরাঙা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক আনিসুল হক জানান, রাত সাড়ে ৮টার দিকে কয়েকজন লোক পিংকি রায় চৌধুরীকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। তাকে মৃত ঘোষণার পর তারা লাশ রেখে পালিয়ে যায়। নিহতের মাথা, মুখ ও হাতসহ বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। 

গুইমারা থানার ওসি (তদন্ত) সফিকুর ইসলাম জানান, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। নিহতের শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন দেখে ধারণা করা হচ্ছে তাকে হত্যা করা হয়েছে। স্বামীকে আটক করতে পুলিশের অভিযান চলছে। 

গুইমারা উপজেলার দার্জিলিং টিলার বাসিন্দা নিরঞ্জন চৌধুরীর ছেলে সাগর চৌধুরীর সাথে একবছর আগে বিয়ে হয় ফেণীর মুন্সীরহাট এলাকার পিংকি রায়ের। বিয়ের পর থেকে মাদক সেবন করে প্রায় তার ওপর শারীরিক নির্যাতন করত সাগর চৌধুরী। শনিবার বিকেলেও পিংকি রায়কে মারধর করে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।