• বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৮
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:০২ রাত

২৮ শতাংশ ব্যাংকের বড় সাইবার হামলা মোকাবেলার প্রস্তুতি নেই

  • প্রকাশিত ০৫:৩০ সন্ধ্যা সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৮
সাইবার হামলা
২৮ শতাংশ ব্যাংকের বড় সাইবার হামলা মোকাবেলার প্রস্তুতি নেই। ছবি: রয়টার্স

আংশিক প্রস্তুতি রয়েছে ৩৪ শতাংশ ব্যাংকের।

দেশের ২৮ শতাংশ ব্যাংকের বড় সাইবার আক্রমণ মোকাবেলার কোনও প্রস্তুতি নেই। আংশিক প্রস্তুতি রয়েছে ৩৪ শতাংশ ব্যাংকের। অবশিষ্ট ৩৮ শতাংশ ব্যাংক যেকোনও ধরনের সাইবার অ্যাকমণ মোকাবেলায় প্রস্তুত। 

বাংলাদেশ ইনিস্টিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্টের (বিআইবিএম) এক গবেষণা প্রতিবেদনে এ তথ্যগুলো তুলে ধরা হয়েছে। রবিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর মিরপুরে বিআইবিএম অডিটোরিয়ামে ‘আইটি সিকিউরিটি অব ব্যাংকস ইন বাংলাদেশ থ্রেটস অ্যান্ড প্রিপিয়ার্ডনেস’ শীর্ষক এক সেমিনারে গবেষণা প্রতিবেদনটি উপস্থাপন করা হয়।

গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৫০টি জালিয়াতির ঘটনা বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, এটিএম কার্ডে জালিয়াতির ঘটনা বেশি ঘটছে। প্রায় ৪৩ শতাংশ এটিএম কার্ড জালিয়াতির মাধ্যমে ঘটেছে। আর প্রায় ২৫ শতাংশ ঘটনা ঘটছে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ঘটেছে। 

ব্যাংকিং খাতে এসিপিএস ও ইএফটির মাধ্যমে প্রায় ১৫ শতাংশ জালিয়াতির ঘটনা ঘটছে। ইন্টারনেট ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ১২ শতাংশ, ব্যাংকিং অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যারে ৩ শতাংশ, সুইফট এবং অন্যান্য মাধ্যম দিয়ে ঘটছে ২ শতাংশ।

সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর মো. আবু হেনা মোহাম্মদ রাজী হাসান। তিনি বলেন, “দিন দিন বিশ্বব্যাপী আইটি ঝুঁকি বাড়ছে। বাংলাদেশের ব্যাংকিং খাতও এর বাইরে নেই। এ খাতের ওপর যেসব আক্রমণ হচ্ছে তা জটিল। বাংলাদেশ ব্যাংক এরই মধ্যে আলাদা গাইড লাইন তৈরি করে দিয়েছে। এগুলো সঠিকভাবে পালন করলে ঝুঁকি কমে আসবে।”