• বুধবার, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:২৭ রাত

নাটোরে মানসিক বিকারগ্রস্ত যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু!

  • প্রকাশিত ০৭:১৬ রাত অক্টোবর ১, ২০১৮
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিলীপ কুমার দাস বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলায় মানসিক বিকারগ্রস্ত এক যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। তবে তার পরিবারের সদস্যদের দাবি—ওই যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

গতকাল রবিবার রাতে উপজেলার গড়মাটি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ওই যুবকের নাম মজনু শেখ(২৭)। তিনি বড়াইগ্রাম উপজেলার গড়মাটি এলাকার নুর আলী শেখের ছেলে।

বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিলীপ কুমার দাস বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ওসি দিলীপ কুমার দাস প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানান, রবিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে গড়মাটি এলাকার মাঝিপাড়া 

তিন মাথা মোড়ে আজগর নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে ধুমপান করেন মজনু শেখ। কিছুক্ষণ পর আবার ওই জায়গায় ফিরে স্থানীয় আখের প্রামাণিকের ছেলে কোরবান প্রামাণিকের কাছে সে আবারও ধুমপান করতে চান। দিতে না চাইলে তিনি কোরবানের সঙ্গে ধস্তাধস্তি শুরু করেন। এক পর্যায়ে কোরবান উত্তেজিত হয়ে বাঁশের লাঠি দিয়ে মজনুকে কয়েকটি বাড়ি দেন।

মার খেয়ে মজনু দৌড়ে বাড়ির দিকে পালান। এ সময় তিনি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি ডোবায় পড়ে যান। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে বাড়ি পৌঁছে দেয়। পরে দিবাগত রাত ২টার দিকে মজনুর মৃত্যু হয়।

আজ সোমবার সকালে খবর পেয়ে বড়াইগ্রাম থানা পুলিশ মজনুর মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

ওসি দিলীপ কুমার দাস দাবি করেন, মজনুর মৃত্যু রহস্যজনক। ময়না তদন্ত এবং পুলিশের তদন্ত শেষে মৃত্যুর সঠিক রহস্য উদ্ঘাটন করা যাবে।

এক প্রশ্নের জবাবে দিলীপ কুমার দাস জানান, পরিবারের সদস্যরা দাবি করছে-মারপিটের কারণে মজনু শেখের মৃত্যু হয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত কোনো মামলা করেনি তারা। মামলা হলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।