• মঙ্গলবার, মার্চ ৩১, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৭:২৬ রাত

স্বর্ণের বার আত্মসাতের মামলায় তিন পুলিশসহ চারজনের কারাদণ্ড

  • প্রকাশিত ০৩:৩২ বিকেল অক্টোবর ৪, ২০১৮
court

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- রামপুরা থানার এসআই মঞ্জুরুল ইসলাম, কনস্টেবল আকাশ চৌধুরী, কন্সটেবল ওয়াহিদুল ইসলাম ও পুলিশের সোর্স মাহফুজ আলম রনি।

রাজধানীর রামপুরা থানায় ক্ষমতার অপব্যবহার করে ১৪৯টি স্বর্ণের বার আত্মসাতের মামলায় তিন পুলিশ সদস্যকে পাঁচ বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে পুলিশের এক সোর্সকে তিন বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়। বৃহস্পতিবার (৪ অক্টোবর) ঢাকার বিভাগীয় স্পেশাল জজ মিজানুর রহমান এ রায় দেন। বিচারকালে আদালত ৩০ জনের সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- রামপুরা থানার এসআই মঞ্জুরুল ইসলাম, কনস্টেবল আকাশ চৌধুরী, কন্সটেবল ওয়াহিদুল ইসলাম ও পুলিশের সোর্স মাহফুজ আলম রনি।

মামলার অভিযোগে জানা যায়, ২০১৪ সালের ১৩ মার্চ রাজধানী রামপুরা থানা পুলিশ বনশ্রী এলাকায় একটি মাইক্রোবাস থেকে ২৩৫টি স্বর্ণের বার সমীর ও মুহিন নামে দুইজনকে আটক করে পুলিশ।। পরবর্তীতে ৭০টি স্বর্ণের বার উদ্ধার দেখিয়ে তাদের বিরুদ্ধে রামপুরা থানায় একটি মামলা দায়ের করে সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশ। পরে ওই দুই আসামি থানায় নেওয়া হলে তাদের কাছ থেকে ২৩৫টি স্বর্ণের বার ছিল বলে জানায়।

পরে ডিবি পুলিশ মামালটির তদন্তভার গ্রহণ করে। তারা নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর ও বগুড়ায় অভিযান চালিয়ে পুলিশের তিন সদস্যসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করে বাকি ১৪৯টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করে।

মামলায় গত ২০১৫ সালের ১৪ মে মাসে দুদকের (উপ-পরিচালক) মির্জা জাহিদুল আলম আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

ওই বছরের ১৫ অক্টোবর বিচারক মামলার আসামি মাইক্রোবাস চালক সজিব শিকদারকে অব্যাহতি দিয়ে চারজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন।