• বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৪, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৪:১৭ বিকেল

প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’: সমুদ্রবন্দরে ৪ নম্বর সতর্ক সংকেত

  • প্রকাশিত ০৩:৪৫ বিকেল অক্টোবর ১০, ২০১৮
ঘুর্নিঝড় তিতলি
রাত ৯.৩০ এর সময় সাইক্লোকেন ডট কম থেকে নেওয়া স্ক্রিনশটে ঘুর্নিঝড় তিতলির সম্ভাব্য গতিপথ।

প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’র কেন্দ্রের ৬৪ কিলোমিটার এর মধ্যে বাতাসের একটানা গতিবেগ সর্বোচ্চ ৯০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা, যা দমকা বা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ১১০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে

বঙ্গোপসাগরে গভীর নিম্নচাপটি ঘুর্ণিঝড় ‘তিতলি’তে রূপ নিয়েছে। আজ বুধবার সকাল থেকেই উত্তাল রয়েছে সমুদ্র। সমুদ্রবন্দরগুলোকে ০৪ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। 

চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরগুলোকে ০৪ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখানোর পাশাপাশি উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সমুদ্রে অবস্থানকারী সকল মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত নিরাপদ দূরত্বে থাকতে বলা হয়েছে।

আবহাওয়া অধিদফতরের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত বিশেষ বিজ্ঞপ্তি অনুসারে, পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড়টি উত্তর দিকে অগ্রসর হয়ে একই এলাকায় অবস্থান করছে। আজ সন্ধ্যা ৬টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ৮৮০ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৮৫০ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে, মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৭২০ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৭৪০ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে অবস্থান করছে। এটি ক্রমশ আরো শক্তিশালী

হয়ে উত্তর/উত্তর-পশ্চিম দিকে ধাবিত হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়েছে, ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’র কেন্দ্রের ৪৪ কিলোমিটার এর মধ্যে বাতাসের একটানা গতিবেগ সর্বোচ্চ ১০০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টায়, যা দমকা বা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ১২০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। 

সকল জেলে নৌকা এবং ট্রলারকে উপকুল থেকে নিরাপদ দূরত্বে থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও বাংলাদেশ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ দেশের অভ্যন্তরে সব ধরণের নৌযান চলাচল বন্ধ রেখেছে। চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরেও সকাল ১০টা  থেকে কার্যক্রম স্থগিত রেখেছে বন্দর কর্তৃপক্ষ।

এছাড়াও, বাগেরহাটে সম্ভাব্য দুর্যোগ মোকাবেলায় কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে এবিং খুলনাতে ২৪২ টি আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। অন্যদিকে আসন্ন বিপর্যয়ে বাংলাদেশ অপানি উন্নয়ন বোর্ডের ছুটিতে থাকা সব কর্মকর্তার ছুটি বাতিল করা হয়েছে।