• শুক্রবার, অক্টোবর ১৯, ২০১৮
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:২৩ রাত

ঘূর্ণিঝড় তিতলি পর্যবেক্ষণে খুলনায় নিয়ন্ত্রণ কক্ষ ও আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত

  • প্রকাশিত ০৫:৫৩ সন্ধ্যা অক্টোবর ১০, ২০১৮
titli

যেকোন সম্ভাব্য দুর্যোগে সমন্বিত কার্যক্রমের মাধ্যমে দ্রুত পদক্ষেপ গ্র্রহণ করে উদ্ধার কার্যক্রম, ক্ষয়ক্ষতি হ্রাস, ত্রাণ ও পুনর্বাসনের জন্য সবাইকে প্রস্তুত থাকতে সভায় আহ্বান  জানানো হয়।

বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় তিতলি পর্যবেক্ষণে খুলনায় নিয়ন্ত্রণ খোলার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন ও পরিস্থিতি মোকাবেলায় ২৪২টি আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত করা হয়েছে।

খুলনা জেলার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা বুধবার (১০ অক্টোবর) দুপুরে জেলা প্রশাসকের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে নিয়ন্ত্রণ কক্ষ খোলার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা হয়। একই সাথে পরিস্থিতি মোকাবেলায় জেলার ২৪২টি আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

সভায় জানানো হয়, পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় তিতলির কারণে আবহাওয়া দপ্তর মোংলা ও পায়রা বন্দরকে ৪ নম্বর হুশিয়ারী সংকেত দেখাতে বলেছে। সম্ভাব্য দুর্যোগ মোকাবেলায় খুলনা জেলায় ২৪২টি আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে। জেলা ও উপজেলায় মেডিকেল টিমের সদস্যরা প্রস্তুত আছে। ফায়ার সার্ভিসের সদস্য, সরকারি, বেসরকারি সংস্থার সেচ্ছাসেবকরা সর্তক আছে। জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে নিয়ন্ত্রণ কক্ষ খোলা হয়েছে। খুলনা জেলা প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের টেলিফোন নম্বর ০৪১-৭২০৩৬৯। 

সভায় জরুরি পরিস্থিতিতে দুর্যোগ মোকাবেলায় সরকারি বেসরকারি দপ্তরগুলো তাদের প্রস্তুতির চিত্র তুলে ধরে। যেকোন সম্ভাব্য দুর্যোগে সমন্বিত কার্যক্রমের মাধ্যমে দ্রুত পদক্ষেপ গ্র্রহণ করে উদ্ধার কার্যক্রম, ক্ষয়ক্ষতি হ্রাস, ত্রাণ ও পুনর্বাসনের জন্য সবাইকে প্রস্তুত থাকতে সভায় আহ্বান  জানানো হয়।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় খুলনা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) জিয়াউর রহমান, জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আজিজুল হক জোয়ার্দ্দারসহ কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।