• সোমবার, আগস্ট ২৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:১৬ রাত

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের প্রথম মামলার আসামিরা রিমান্ডে

  • প্রকাশিত ০৭:৫৩ রাত অক্টোবর ১১, ২০১৮
দায়ের হলো ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের প্রথম মামলা
আদালত প্রত্যেকের দুই দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন। ছবি: সৌজন্যে

শুনানি শেষে আদালত প্রত্যেকের দুই দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা প্রথম মামলার ৫ আসামির দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। আসামিরা হলো কাউসার গাজী, সোহেল মিয়া, তারিকুল ইসলাম শোভন, রুবাইয়াত তানভির (আদিত্য) ও মাসুদুর রহমান ইমন। 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার ভুয়া প্রশ্নপত্র ফাঁস করার অভিযোগে এই পাঁচজনের বিরুদ্ধে পল্টন থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করা হয়। 


আরও পড়ুন: দায়ের হলো ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের প্রথম মামলা


বৃহস্পতিবার (১১ অক্টোবর) ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতের বিচারক সত্যব্রত শিকদার আসামিদের রিমান্ডে নেওয়ার এই আদেশ দেন। বৃহস্পতিবার বিকালে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডির অর্গানাইজড ক্রাইমের উপ-পরিদর্শক শিব্বির আহমেদ সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করে আদালতে হাজির করেন আসামিদের এবং তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত আসামিদের কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন।

শুনানি শেষে আদালত প্রত্যেকের দুই দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস ও ফেসবুকে ফেক আইডি ব্যবহার করে ১০০ শতাংশ গ্যারান্টি দিয়ে শিক্ষার্থীদের কাছে প্রশ্ন বিক্রি করতো আসামিরা। এ ছাড়াও অন্যের জাতীয় পরিচয়পত্র ব্যবহার করে ভুয়া বিকাশ অ্যাকাউন্ট খুলে টাকা লেনদেনের সঙ্গে জড়িত তারা। এই প্রশ্নফাঁসের সঙ্গে দীর্ঘদিন কাজ করে আসছে। কিন্তু এবার প্রশাসনের তৎপরতায় প্রশ্নপত্র ফাঁস করতে পারেনি। কিন্তু ভুয়া প্রশ্নপত্র তৈরি করে ১০টি ফেক ফেসবুক অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে মেডিকেলের প্রশ্ন পাওয়া যাচ্ছে বলে প্রচারণা চালায়।