• শুক্রবার, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:১৪ সকাল

আজ মহাষষ্ঠীর মধ্য দিয়ে শুরু শারদীয় দুর্গাপূজা

  • প্রকাশিত ০৪:২৩ বিকেল অক্টোবর ১৫, ২০১৮
দেবী দুর্গা
দেবী দুর্গার প্রতীমা। ছবি: ইউএনবি

পঞ্জিকা মতে, এবার ঘোড়ায় চড়ে কৈলাশ থেকে মর্ত্যলোকে আসবেন দেবী দুর্গা। আর ফিরবেন দোলায় চড়ে। এবার দেবী দুর্গার আগমন-প্রস্থান দুটোই অমঙ্গল

মহাষষ্ঠীর মধ্য দিয়ে আজ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা। 

পঞ্জিকা মতে, এবার ঘোড়ায় চড়ে কৈলাশ থেকে মর্ত্যলোকে আসবেন দেবী দুর্গা। আর ফিরবেন দোলায় চড়ে। এবার দেবী দুর্গার আগমন-প্রস্থান দুটোই অমঙ্গল। 

আগামী শুক্রবার বিজয়া দশমীতে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যদিয়ে পাঁচ দিনব্যাপী এ উৎসবের শেষ হবে।

এর আগে পূজার দ্বিতীয় দিনে মহাসপ্তমীর পূজা, পরের দিন মহাঅষ্টমীর পূজা এবং বৃহস্পতিবার নবমী পূজা অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণীতে দেশের হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

বাণীতে রাষ্ট্রপতি বলেন, দুর্গাপূজা কেবল ধর্মীয় উৎসব নয়, সামাজিক উৎসবও। দুর্গোৎসব উপলক্ষে ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব, পরিবার-পরিজন, পাড়া-প্রতিবেশী একত্রিত হন, মিলিত হন আনন্দ-উৎসবে। তাই এ উৎসব সার্বজনীন। দুর্গাপূজার সাথে মিশে আছে আবহমান বাংলার ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি।

প্রধানমন্ত্রী তার বাণীতে বলেন, বাংলাদেশ ধর্ম-বর্ণ-নির্বিশেষে সকল মানুষের নিরাপদ আবাসভূমি। ‘ধর্ম যার যার উৎসব সবার’ এ আপ্ত বাক্যে উজ্জীবিত হয়ে আমরা সবাই একসাথে উৎসব পালন করব। সকলে মিলে যুদ্ধ করে আমরা বাংলাদেশ স্বাধীন করেছি। তাই এই দেশ আমাদের সকলের।

তিনি আরো বলেন, ‘আমার প্রত্যাশা, বাঙালির হাজার বছরের ঐতিহ্য সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বন্ধন অটুট রেখে সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সরকারের রূপকল্প ২০২১ ও ২০৪১ বাস্তবায়নে সক্ষম হব।’

প্রধানমন্ত্রী শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষ্যে হিন্দু ধর্মাবলম্বীসহ সকল নাগরিকের শান্তি, কল্যাণ ও সমৃদ্ধি কামনা করেন।