• মঙ্গলবার, এপ্রিল ০৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:১০ সকাল

নতুন ভোকাল, গিটারিস্ট আসছে এলআরবি'তে

  • প্রকাশিত ০৬:১৩ সন্ধ্যা অক্টোবর ২২, ২০১৮
এলআরবি
এলআরবি। ছবি: ইমতিয়াজ আলম বেগ ফটোগ্রাফি

‘আইয়ুব বাচ্চুর অবর্তমানে এলআরবির জনপ্রিয়তায় যেন এতটুকু ভাটা না পড়ে, সেদিকটাও দেখব।’

বাংলা রক সংগীতের কিংবদন্তি আইয়ুব বাচ্চুর অকাল প্রয়ানের পর সবচেয়ে বড় যে প্রশ্ন ভক্ত সঙ্গীতপ্রেমীদের মধ্যে উঠেছে তা হলো এলআরবির এখন কী হবে? কে হাল ধরবে রক সংগীতের দিকপাল এই ব্যান্ডটির। 

আইয়ুব বাচ্চুর নিজের হাতে গড়া ব্যান্ডটির ভবিষ্যতের দিকে এখন সবার দৃষ্টি। বেঁচে থাকতে আইয়ুব বাচ্চু নিজেই  ছিলেন ব্যান্ডটির লিড গিটারিস্ট ও ভোকাল। তার হাত ধরেই এলআরবি জনপ্রিয়তার শীর্ষে ওঠে। আইয়ুব বাচ্চুর প্রতিশব্দ হয়ে দাঁড়ায় এলআরবি। 

বেঁচে থাকতে বাচ্চু ২০১৪ সালে বেশ কিছু কনসার্টে ছেলে আহনাফ তাজওয়ার কে সাথে নিয়ে পারফর্ম করেন। ধারণা করা হচ্ছিলো আহনাফকে প্রতিষ্ঠিত করা হবে এলআরবি'র সদস্য হিসেবে। তবে আহনাফকে নিয়মিত আর এলআরবি'র পাশে পাওয়া যায়নি। তিনি এখন কানাডায় লেখাপড়া করছেন। 

এ প্রসঙ্গে এলআরবির ম্যানেজার শামীম এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি "ভোকাল হান্টিংয়ের" মাধ্যমে নতুন কোনো ভোকাল ও লিড গিটারিস্টকে দলের সাথে যুক্ত করা হবে বলে জানান। তাছাড়া আইয়ুব বাচ্চুর পরিবারের সাথে কথা বলে আহনাফের সংগীত নিয়ে ভবিষ্যৎ চিন্তা কি তাও জানবেন এলআরবি সদস্যরা।   

তিনি জানান, "আমরা আইয়ুব বাচ্চুর ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে এলআরবিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। আহনাফ তাজওয়ার এখন কানাডায় পড়াশোনা করছেন। এ সময় আমরা তাঁকে কোনো চাপ দেব না। প্রয়োজনে তাঁকে সহযোগিতা করব। দ্বিতীয় আরেকজন আইয়ুব বাচ্চুকে পাওয়া যাবে না, এটা সত্যি। তবে ব্যান্ডের কার্যক্রম স্বাভাবিক রাখার জন্য আমরা নতুন সদস্য যুক্ত করব। আইয়ুব বাচ্চুর গান দেশে অনেকেই চর্চা করেন। আমরা হয়তো কোনো বড় প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে 'এলআরবির জন্য ভোকাল হান্ট' করব। যাকে পাওয়া যাবে, তাকে এলআরবির মতো প্রস্তুত করব। আমরা এলআরবিকে রাখতে চাই। আইয়ুব বাচ্চুর অনেক স্বপ্নের কথা আমরা জানি। সেসব স্বপ্ন বাস্তবে রূপ দেওয়ার জন্য এলআরবিকে টিকিয়ে রাখতে হবে। আইয়ুব বাচ্চুর অবর্তমানে এলআরবির জনপ্রিয়তায় যেন এতটুকু ভাটা না পড়ে, সেদিকটাও দেখব।"

আইয়ুব বাচ্চুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে দেশে একটি আন্তর্জাতিক মানের মিউজিক ইনস্টিটিউট করার কথা জানান শামীম। এছাড়াও আইয়ুব বাচ্চুর ব্যবহার করা গিটার, গান ও বিভিন্ন কিছু নিয়ে তার নামে একটা স্মৃতি জাদুঘর করার ব্যাপারেও চিন্তা ভাবনা চলছে বলে জানান এলআরবির ব্যান্ড ম্যানেজার।