• বুধবার, নভেম্বর ১৪, ২০১৮
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:১৫ রাত

রাজধানীতে নারী সরকারি কর্মকর্তাকে যৌন হয়রানি

  • প্রকাশিত ০৫:৫২ সন্ধ্যা অক্টোবর ২৭, ২০১৮
sexual harassment
যৌন হয়রানির দায়ে অভিযুক্ত ব্যক্তি। ছবি- সংগৃহীত

এরই মাঝে দায়িত্বরত পুলিশের উদাসীনতায় ওই ব্যক্তি তার ব্যাগ ছিনিয়ে নিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

রাজধানীতে আবারো বাসে এক নারীর যৌন হয়রানির শিকার হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সরকারের প্রথম শ্রেণীর কর্মকর্তা পদে চাকুরীরত ওই নারী অভিযুক্ত ব্যক্তিকে নিয়ে পুলিশ চেকপোস্টে গেলে, পুলিশের উদাসীনতায় সেখান থেকে ওই ব্যক্তি পালিয়ে যায়। 

ভুক্তভোগী নারী জানান, মিরপুরের আনসার ক্যাম্প থেকে আকিক নামের বাসে তিনি মিরপুর ১০ নাম্বার যাচ্ছিলেন। পথে মিরপুর ১ নম্বর থেকে ৩৪/৩৫ বছর বয়সী এক যুবক উঠে তার পাশে বসে। কিছুক্ষন পরেই সেই যুবক তার শরীরে হাত দেয়। তিনি তৎক্ষণাৎ এ প্রতিবাদ করে যুবকের সাথে থাকে ব্যাগটি কেড়ে নেন এবং মিরপুর ১০ নাম্বার গোল চক্কর সংলগ্ন পুলিশ ফাঁড়িতে অভিযোগ জানান।  

এরই মাঝে দায়িত্বরত পুলিশের উদাসীনতায় ওই ব্যক্তি তার ব্যাগ ছিনিয়ে নিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

ভুক্তভোগী ওই নারী কর্মকর্তা ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, এ ধরণের বিকৃত মানসিকতার লোকদের ভিড়েই আমাদের প্রতিনিয়ত চলতে হচ্ছে। আইন করেও কোনো প্রতিকার পাওয়া যাচ্ছে না। সরকারের প্রথম শ্রেণীর একজন কর্মকর্তা হয়েও আমাকে এ ধরণের অভিজ্ঞতার মধ্যে দিয়ে যেতে হলো। 

উল্লেখ্য বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাকের সাম্প্রতিক গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গণপরিবহনে যাতায়াতকারী ৯৪ শতাংশ নারী যৌন হয়রানির শিকার এবং এ হেনস্তাকারীদের ৬৬ শতাংশ পুরুষের বয়স ৪১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে এবং ৩৫ শতাংশ নারী জানিয়েছেন, তারা ১৯ থেকে ২৫ বছর বয়সী পুরুষদের দ্বারা যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন। প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, শিকার হওয়া নারীদের ৮০.৭ শতাংশ প্রতিবাদ করেন না কিংবা কোনো ব্যবস্থা না নিয়ে নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন।