• সোমবার, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:০৬ রাত

বাঁচাতে গিয়ে মরলো আবির, বাঁচল ২ বন্ধু

  • প্রকাশিত ০৮:৫৭ রাত অক্টোবর ৩০, ২০১৮
আশরাফ সিদ্দিকি আবির
আশরাফ সিদ্দিকি আবির। ছবি : সংগৃহীত

খবর পেয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য ( এমপি) আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা চেয়ারম্যান হারুনর রশিদ পাপ্পু, উপজেলা নির্বাহী আফিসার (ইউএনও) উম্মুল বানীন দ্যুতি ও থানার ওসি নজরুল ইসলাম জুয়েল ঘটনাস্থলে ছুটে যান।

নাটোরের লালপুর উপজেলার পদ্মা নদীতে ডুবে যাওয়া দুই বন্ধুকে রক্ষা করতে গিয়ে প্রাণ গেল এক স্কুল ছাত্রের।  আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে মৃতদেহটি উদ্ধার করে রাজশাহীর একদল ডুবুরি।

নিহত ওই কিশোরের নাম আশরাফ সিদ্দিকি আবির (১৪)। সে লালপুর উপজেলার রুইগাড়ি গ্রামের আবু বক্কর সিদ্দিকের ছেলে এবং নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলস উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র।

লালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম জুয়েল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ওসি নজরুল ইসলাম জুয়েল প্রত্যক্ষদর্শী ও নর্থ বেঙ্গল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গাওছুল আজম সূত্রে জানান, সরকারের ‘সৃজনে উন্নয়নে বাংলাদেশ’ কর্মসূচীর উৎসব পালনে নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলস স্কুল ভেন্যু হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের বিজয়ফুল প্রতিযোগীতার কারণে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় অ্যাসেম্বলি শেষে শিক্ষার্থীদের ছুটি দেওয়া হয়। 

এ সময় আবিরসহ নবম শ্রেণির ১৬ শিক্ষার্থী এক সঙ্গে গৌরীপুর পদ্মা নদী দেখতে যায়। ১২টার দিকে এক পর্যায়ে তারা নদীর হাঁটু পানিতে মোবাইল ফোনে সেলফি তুলতে থাকে। এ সময় সায়েম ও তানজিল নামে দুই কিশোর পানিতে পড়ে ডুবে যেতে থাকে। তাদের উদ্ধার করতে সাঁতার না জানলেও ছুটে যায় আবির। পরে সেও পানিতে ডুবে যায়। এসময় অন্যরা সায়েম ও তানজিলকে উদ্ধার করতে পারলেও আবির নিখোঁজ থাকে। 

খবর পেয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য ( এমপি) আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা চেয়ারম্যান হারুনর রশিদ পাপ্পু, উপজেলা নির্বাহী আফিসার (ইউএনও) উম্মুল বানীন দ্যুতি ও থানার ওসি নজরুল ইসলাম জুয়েল ঘটনাস্থলে ছুটে যান। কিন্তু স্থানীয় লোকজন অনেক খোঁজ করেও আবিরের কোনো সন্ধান পায়নি। 

পরে রাজশাহী ডুবুরি দলকে খবর দেওয়া হয়। তারা পৌঁছে অনেক চেষ্টার পর রাত ৬টা ৪১ মিনিটে আবিরের মৃতদেহ উদ্ধার করে।