• শুক্রবার, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৬:৫১ সন্ধ্যা

সৈয়দ আশরাফ ফুসফুসের ক্যান্সারে আক্রান্ত

  • প্রকাশিত ১০:৫৪ সকাল নভেম্বর ৫, ২০১৮
সৈয়দ আশরাফ
সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। ফাইল ছবি।

সৈয়দ আশরাফ বর্তমানে থাইল্যান্ডের ব্যাংককে বুমরুনগ্রাড হাসপাতালের সিসিএমইউয়ে চিকিৎসাধীন আছেন

জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম স্টেজ ৪ ফুসফুসের ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছেন এবং বর্তমানে তার অবস্থা গুরুতর বলে জানিয়েছেন তার ভাই মেজর জেনারেল সৈয়দ সাফায়েত ইসলাম। রবিবার কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজে জেল হত্যা দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই তথ্য জানান। 

তিনি বলেন, "উনি মারাত্মকভাবে অসুস্থ। আমরা রাজনীতির চেয়ে তার চিকিৎসা নিয়েই বেশি চিন্তিত এই মুহুর্তে।"

আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বর্তমানে থাইল্যান্ডের ব্যাংককে বুমরুনগ্রাড হাসপাতালের সিসিএমইউয়ে চিকিৎসাধীন আছেন।

সৈয়দ সাফায়েত ইসলাম তার ভাইয়ের সর্বশেষ অবস্থার সম্পর্কে বলেন, "আমি ৩ দিন আগেই থাইল্যান্ড থেকে এসেছি। উনি আমাকে চিনতে পারেননি, এমনকি, তার মেয়েকেও না। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। এই অবস্থায় তার রাজনীতিতে ফিরে আসার সম্ভাবনা খুবই কম।"

কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজে জেল হত্যা দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত সভায় বক্তব্য রাখছেন সৈয়দ সাফায়েত ইসলাম। ছবি: সৌজন্যে। 

এসময় তিনি সৈয়দ আশরাফের রাজনীতিতে ফিরে আসা নিয়ে গুজবে কান না দিয়ে তার সুস্থতার জন্য সবাইকে দোয়া করতে বলেন।

তিনি বলেন, "আমরা তাকে সুস্থ করে তোলার সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি। আপনারা অযথা তাকে নিয়ে গুজব ছড়াবেন না।"

বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলামের সন্তান সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ২০০৭ সালে সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে আওয়ামী লীগের দুঃসময়ে দলকে সুসংহত রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন।  

এরপর ২ মেয়াদে তিনি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। বর্তমানে তিনি দলটির একজন প্রেসিডিয়াম সদস্য।