• সোমবার, নভেম্বর ১৮, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:৩৪ দুপুর

ময়নামতি যুদ্ধ সমাধিতে দশ রাষ্ট্রদূতের শ্রদ্ধাঞ্জলি

  • প্রকাশিত ১০:০৮ রাত নভেম্বর ৯, ২০১৮
ময়নামতি যুদ্ধ সমাধিতে দশ রাষ্ট্রদূতের শ্রদ্ধাঞ্জলি
ময়নামতি যুদ্ধ সমাধিতে দশ রাষ্ট্রদূতের শ্রদ্ধাঞ্জলি। ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন

স্মরণ অনুষ্ঠান শেষে কমনওয়েলথভুক্ত দেশের প্রতিনিধিরা সমাধিস্থল পরিদর্শন করেন এবং দাঁড়িয়ে নিরবতা পালন করেন

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে নিহত সৈনিকদের স্মরণে কুমিল্লা সেনানিবাস সংলগ্ন ময়নামতি কমনওয়েলথ যুদ্ধ সমাধিতে (ওয়ার সেমেটারি) শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন ১০ দেশের রাষ্ট্রদূত ও প্রতিনিধিগণ। শুক্রবার ভারপ্রাপ্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার কানভের হোসেন বর-এর নেতৃত্বে  বেশ কিছু সংখ্যক দেশের হাইকমিশনার ও প্রতিনিধিরা  এই স্মরণ সভায় অংশগ্রহণ করেন। 

এ  সময় উপস্থিত ছিলেন  জার্মান রাষ্ট্রদূত পিটার তাহরু হলতি,  ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূত মেরি এনিক বাউরদিন,  জাপানের রাষ্ট্রদূত হিরুইয়াসু ইজুমি,  অষ্ট্রেলিয়ার রাষ্ট্রদূত জুলিয়া নিবলেট,  কানাডার রাষ্ট্রদূত বেনয়িট প্রিফনটেইন,  শ্রীলংকান রাষ্ট্রদূত ক্রিশান্তি ডি সিলভা,  মার্কিন দূতাবাসের প্রতিনিধি জুয়েল রিফম্যান, ভারতীয় দূতাবাসের প্রতিনিধি ব্রিগেডিয়ার জে এস চিমাসহ অন্যান্য  প্রতিনিধিরা। শ্রদ্ধা নিবেদনের সময় প্রার্থনা কার্যক্রম পরিচালনা করেন ফাদার আলবারু। 

হাইকমিশনার ও প্রতিনিধিগণ ময়নামতির যুদ্ধ সমাধির পশ্চিম পাশে অবস্থিত হলিক্রস পাদদেশে ফুলেল শ্রদ্ধাঞ্জলির মধ্য দিয়ে নিহত সৈনিকদের স্মরণ করেন। এ সময় বিউগলে বেজে ওঠে করুণ সুর। বাংলাদেশের পক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন কুমিল্লা সেনানিবাসের জিওসি ও ৩৩ পদাতিক ডিভিশনের কমান্ডিং অফিসার মেজর জেনারেল তাবরেজ আহমেদ শামস চৌধুরী, এনডিসি- পিএসসি, কুমিল্লা জেলা প্রশাসনের পক্ষে জেলা প্রশাসক আবুল ফজল মীর ও জেলা পুলিশের পক্ষে শ্রদ্ধা জানান জেলা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম-বিপিএম (বার) পিপিএম।

 

স্মরণ অনুষ্ঠান শেষে কমনওয়েলথভুক্ত দেশের প্রতিনিধিরা সমাধিস্থল পরিদর্শন করেন এবং দাঁড়িয়ে নিরবতা পালন করেন। 

উল্লেখ্য, ১৯৪১ সাল থেকে ১৯৪৫ সাল পর্যন্ত  দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে নিহত মোট ৭৩৮ জন সৈনিককে সমাহিত করা হয় ময়নামতির এ যুদ্ধ সমাধিতে।