• রবিবার, নভেম্বর ১৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৮ রাত

অরিত্রী আত্মহত্যা: জড়িত তিন শিক্ষক বরখাস্ত

  • প্রকাশিত ১০:১৫ সকাল ডিসেম্বর ৬, ২০১৮
ভিকারুননিসার অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদাউস
ভিকারুননিসার অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদাউস। ছবি : মেহেদি হাসান

এর আগে অরিত্রী অধিকারীর আত্মহত্যার ঘটনায় ওই তিন শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছিলো

ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থী অরিত্রী অধিকারীর আত্মহত্যার ঘটনায় তিন শিক্ষককে বরখাস্ত করেছে গভর্নিং বডি। তারা হলেন- ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌস, প্রভাতী শাখার শিফট ইনচার্জ জিনাত আখতার ও শ্রেণিশিক্ষক হাসনা হেনা।

বুধবার সন্ধ্যায় গভর্নিং বডির বিশেষ বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এর আগে অরিত্রী অধিকারীর আত্মহত্যার ঘটনায় ওই তিন শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছিলো। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে র‌্যাব ও পুলিশকে চিঠিও পাঠায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

র‌্যাবের মহাপরিচালক এবং ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার বরাবর চিঠিটি পাঠানো হয়। এছাড়া ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান বরাবর আরেকটি চিঠি দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। চিঠিতে বহিষ্কারসহ ওই শিক্ষকদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়।

পাশাপাশি মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে ওই তিন শিক্ষকের বেতনভাতা বন্ধের ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়ে আরেকটি চিঠি পাঠানো হয়।

উল্লেখ্য, পরীক্ষা চলাকালে মোবাইল ফোন ব্যবহারের কারণে শিক্ষকদের তিরস্কারের শিকার হয়ে সোমবার ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণীর ছাত্রী অরিত্রী অধিকারী তাদের রাজধানীর শান্তিনগরের বাসায় আত্মহত্যা করে।

এ ঘটনার প্রতিবাদে ভিকারুননিসার শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা তীব্র বিক্ষোভ গড়ে তুলেছেন। তারা দায়ী শিক্ষকদের বহিষ্কার ও বিচার চেয়েছেন।


আরও পড়ুন- ভিকারুননিসা শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা, অপদস্থ অধ্যক্ষ 

আরও পড়ুন- হাইকোর্ট: ভিকারুননিসা শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা হৃদয় বিদারক 

আরও পড়ুন- ভিকারুননিসা ছাত্রীর আত্মহত্যার ঘটনায় তদন্ত কমিটি

আরও পড়ুন- ভিকারুননিসা ছাত্রীর আত্মহত্যা: ক্যাম্পাসের সামনে বিক্ষোভ

আরও পড়ুন- ভিকারুননিসা'র সব শাখার কার্যক্রম স্থগিত