• বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৮
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫৪ রাত

প্রার্থিতা ফিরে পেলেন ৮১ জন

  • প্রকাশিত ১০:২০ রাত ডিসেম্বর ৬, ২০১৮
নির্বাচন কমিশন

শুক্রবার ১৫০টি এবং শনিবার বাকি ২৩৩টি আবেদনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানাবে ইসি।

মনোয়নয়নপত্র বাতিলে রিটার্নিং কর্মকর্তাদের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে করা ১৬০টি আপিলের শুনানি শেষে ৮১ প্রার্থী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লড়ার বৈধতা পেয়েছেন।

বৃহস্পতিবার শুনানির প্রথম দিনে প্রায় ১৬০টি আপিল নিষ্পত্তি করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।  ইসি ৮১ প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করে, ৭৭ জনের প্রার্থীতা বাতিল করেন এবং ২ জনের আবেদন অনিষ্পন্ন রাখা হয়।

আপিল আবেদনের শুনানি শেষে নির্বাচন কমিশনের ছাড়পত্র পাওয়ায় চার আসনে নিজেদের একক প্রার্থী ফিরে পেয়েছে বিএনপি।

বিএনপির যে চার একক প্রার্থীকে বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে তারা হলেন বগুড়া-৭ আসনের মোর্শেদ মিল্টন, জামালপুর-৪ আসনের ফরিদুল কবির তালুকদার (শামীম), মানিকগঞ্জ-২ আসনের আবিদুর রহমান খান ও ঢাকা-১ আসনের খন্দকার আবু আশফাক।

বিভিন্ন আসনে জমা হওয়া মনোনয়নপত্র গ্রহণ ও বাতিলে রিটার্নিং কর্মকর্তাদের নেয়া সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে করা আপিলের শুনানি বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় শুরু করে নির্বাচন কমিশন। তিন দিনব্যাপী এই শুনানি চলবে।

আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ১১তম সংসদ নির্বাচনের জন্য ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ৩৬ আসনে এবং বিএনপি পাঁচ আসনে কোনো প্রার্থী দেয়নি।

গত রবিবার রিটার্নিং কর্মকর্তারা যাচাই-বাছাই করে ছয় আসনে বিএনপির সব প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র বাতিল করে দেন। আসনগুলো হলো সুনামগঞ্জ-৩, মানিকগঞ্জ-২, জামালপুর-৪, পাবনা-১, বগুড়া-৭ ও ঢাকা-১। সেই সাথে তিন আসন কুড়িগ্রাম-৪, সাতক্ষীরা-১ ও নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনে মনোনয়ন হারান আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা।

শুক্রবার ১৫০টি এবং শনিবার বাকি ২৩৩টি আবেদনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানাবে ইসি।

আসন্ন সাধারণ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য জমা দেয়া মনোনয়নপত্র বাতিল এবং গ্রহণের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে নির্বাচন কমিশনের বেধে দেয়া তিন দিন সময়ের মধ্যে মোট ৫৪৩টি আপিল আবেদন জমা পড়েছিল।