• শনিবার, ডিসেম্বর ০৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:২৫ দুপুর

নির্বাচনি প্রচারণার সময় কর্নেল অলির ছেলের ওপর হামলা

  • প্রকাশিত ০৯:২০ রাত ডিসেম্বর ১৫, ২০১৮
চট্টগ্রাম

শনিবার দুপুরে অলি আহমেদের পক্ষে তার ছেলে ওমর ফারুক গণসংযোগের উদ্দেশে কেরানীহাটের তেমুহনী এলাকায় গেলে দুর্বৃত্তরা তার ওপর হামলা চালায়।

চট্টগ্রাম-১৪ (চন্দনাইশ) আসনে নির্বাচনি প্রচারণার সময় ঐক্যফ্রন্টের শরিক দল- লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) প্রার্থী কর্নেল অলি আহমেদের ছেলে ওমর ফারুকের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। শনিবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরে সাতকানিয়া থানার তেমুহনী এলাকায় হামলার শিকার হন তিনি। হামলায় কেওচিয়া ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আবু সাঈদ, তার বড়ভাই আব্দুস সালাম এবং ছেলে আব্দুল গফুরও আহত হয়েছেন। সাতকানিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিউল কবির বাংলা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কর্নেল অলির নির্বাচনি মিডিয়া সেলের সমন্বয়ক মো. জসিম জানান, শনিবার দুপুরে অলি আহমেদের পক্ষে তার ছেলে ওমর ফারুক গণসংযোগের উদ্দেশে কেরানীহাটের তেমুহনী এলাকায় গেলে দুর্বৃত্তরা তার ওপর হামলা চালায়। হামলাকারীরা ওমর ফারুকের বাম হাতের আঙুল কেটে ফেলে। রক্তাক্তবস্থায় তাকে চন্দনাইশ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে বিকালে তাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এ সম্পর্কে জানতে চাইলে চমেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই শীলাব্রত বড়ুয়া বলেন, ‘আহতাবস্থায় বিকাল ৫টার দিকে ওমর ফারুককে হাসপাতালে আনা হয়। কিছুক্ষণ চিকিৎসা নেওয়ার পর সন্ধ্যা ৬টার দিকে তাকে হাসপাতাল থেকে প্রাইভেট হাসপাতালে নিয়ে যান পরিবারের সদস্যরা।’ ওমর ফারুক শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাত পেয়েছেন বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

সাতকানিয়া থানার ওসি শফিউল কবির জানান, ‘দুপুর পৌনে ২টার দিকে হামলার শিকার হন ফারুক। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কাউকে পায়নি। কে বা কারা হামলা চালিয়েছে, পুলিশ তা তদন্ত করে দেখছে। এখনও পর্যন্ত এ বিষয়ে থানায় কেউ অভিযোগ দায়ের করেনি।’