• শুক্রবার, এপ্রিল ০৩, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:৫৩ দুপুর

আচরণবিধি লঙ্ঘন: দেয়াল থেকে পোস্টার তুলছেন মাশরাফির স্বেচ্ছাসেবীরা

  • প্রকাশিত ০৬:৫৩ সন্ধ্যা ডিসেম্বর ১৯, ২০১৮
মাশরাফি পোস্টার
আচরণবিধি মেনে পোস্টার তুলে ফেলছেন মাশরাফির সমর্থকরা। ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন

আচরণবিধি লঙ্ঘনের ঘটনা মাশরাফির নজরে আসার সাথে সাথেই তিনি টেলিফোনে আচরণবিধি মেনে চলার বিষয়ে কর্মী-সমর্থকদের নির্দেশ দেন

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নড়াইল-২ আসন থেকে নৌকা মার্কা নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন জাতীয় ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। এখনও নির্বাচনী এলাকায় না গেলেও থেমে নেই নড়াইল এক্সপ্রেসের পক্ষে প্রচারণা। কারণ নিজের এলাকায় তার ভক্ত-সমর্থকের অভাব নেই।

তবে, এবার একটু ভিন্নধর্মী উদ্যোগ নিয়েছেন মাশরাফির স্বেচ্ছাসেবী সমর্থকরা।

সারাদেশের মতো নড়াইলেও নির্বাচনী প্রচার চালাতে গিয়েযেখানে সেখানে পোস্টার লাগানো সহ ছোট-খাট আচরণ বিধি লঙ্ঘিত হচ্ছে প্রতিনিয়ত। নির্বাচনী মাঠে না থাকলেও আচরণবিধি লঙ্ঘনের ঘটনা মাশরাফির নজরে আসার সাথে সাথেই তিনি টেলিফোনে আচরণবিধি মেনে চলার বিষয়ে কর্মী-সমর্থকদের নির্দেশ দেন।

মাশরাফির নির্দেশনা পেয়েই বুধবার সকাল থেকে মাঠে নেমে পড়েছেন তার ভক্তরা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘোষণা দিয়ে তারা এলাকার বিভিন্ন দেওয়াল এবং বৈদ্যুতিক খুঁটি থেকে মাশরাফির নির্বাচনী পোস্টার অপসারণ করছেন। মাশরাফিরনির্বাচনী প্রচারণায়দলীয় নেতাকর্মী ছাড়াও নির্বাচনে গত একমাস ধরে কাজ করে চলেছেন তার কয়েক শ' তরুণ ভক্ত।

প্রসঙ্গত, নড়াইল পৌর এলাকার দূর্গাপুর অফিসে নৌকা প্রতীকে আলোকসজ্জ্বা করায় মঙ্গলবার (১৮ ডিসেম্বর) ভ্রাম্যমাণ আদালত জরিমানা করে। এরপরই নির্বাচনী এলাকায় আচরণবিধি লঙ্ঘন না করতে কর্মী-সমর্থকদের কঠোর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা।

এ বিষয়ে নড়াইলের মাশরাফি ভক্ত ও তার কর্মী রাসেল বিল্লাহ বলেন, “মাশরাফি ভাই চান না কোনও ছোটখাট আচরণবিধিও লঙ্ঘন হোক। তাই আমরা সারাদিন কাজ করে নড়াইলের বিভিন্ন জায়গায় দেওয়াল বা খুঁটি থেকে পোস্টার তুলে ফেলেছি।”