• শুক্রবার, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৬:৫১ সন্ধ্যা

৯৯৯-এ কল দিয়ে যৌনপল্লী থেকে উদ্ধার পেল কিশোরী

  • প্রকাশিত ১২:০০ রাত ডিসেম্বর ২০, ২০১৮
টাঙ্গাইল

বুধবার বিকেলে টাঙ্গাইল মডেল থানার ওসি সায়েদুর রহমান ঢাকা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন


৯৯৯-এ কল দিয়ে টাঙ্গাইল যৌনপল্লী থেকে উদ্ধার পেয়েছে ১৫ বছরের এক কিশোরী। টাঙ্গাইল শহরের কান্দাপাড়ায় অবস্থিত যৌনপল্লী থেকে মঙ্গলবার (১৮) ডিসেম্বর ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে পুলিশ। 

বুধবার বিকেলে টাঙ্গাইল মডেল থানার ওসি সায়েদুর রহমান ঢাকা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। পুলিশ জানায়, কিশোরীটি তার কাছে আগত এক ব্যক্তির কাছে তার কষ্টের কথা বললে, সেই ব্যক্তি ৯৯৯ এ কল করলে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, উদ্ধার হওয়া ওই কিশোরীর বাড়ি হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলায়। কয়েকমাস আগে ভাগ্যান্বেষণে ঢাকায় এসেছিল সে। ঢাকায় এসে গাবতলি এলাকায় একটি গার্মেন্টস কারখানায় কাজে যোগ দেয়। কর্মস্থলে যাওয়া-আসার পথে তার সাথে পরিচয় হয় রুবেল নামের এক ব্যক্তির সাথে। পরিচয় থেকে এক সময় ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। একদিন রুবেল ওই কিশোরীর সাথে শাহনাজ নামের এক নারীর পরিচয় করিয়ে দেয়। পরিচয়ের এক পর্যায়ে একটি দোকান থেকে তারা কোল্ড ড্রিংকস পান করে। এর তিনদিন পর ওই কিশোরী জ্ঞান ফিরলে  সে টাঙ্গাইল শহরের কান্দাপাড়ার যৌনপল্লীতে নিজেকে আবিষ্কার করে। সেখানে প্রায় ৩ মাস কাটে তার। অনেক কাকুতি-মিনতির পরও মেলে না উদ্ধার।

এ অবস্থায় মঙ্গলবার সকালে তার কাছে আসা এক ব্যক্তির কাছে ওই কিশোরী অন্ধকার জগত থেকে তাকে মুক্ত করার জন্য অনুরোধ জানায়। ঐ ব্যক্তি পরে ৯৯৯-এ কল করে ঘটনাটি টাঙ্গাইল মডেল থানায় জানান। পরবর্তীতে সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশ উদ্ধার করে নিয়ে আসে ওই কিশোরীকে।

এ ব্যাপারে টাঙ্গাইল মডেল থানার ওসি সায়েদুর রহমান ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, পুলিশ যৌনপল্লী থেকে ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। এ ব্যাপারে থানায় মামলা দায়েরর প্রস্তুতি চলছে। মামলা এবং আইনগত ব্যবস্থার পর তাকে পরিবারের হস্তান্তর করা হবে বলে ওসি জানান।