• বুধবার, জুন ২৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪১ দুপুর

শৈত্যপ্রবাহ: আগুন পোহাতে যেয়ে রংপুরে আরো দুইজনের মৃত্যু

  • প্রকাশিত ০৮:৪৩ রাত জানুয়ারী ৬, ২০১৯
শীত
প্রতীকী ছবি

দরিদ্র পরিবারগুলো শীত নিবারন করতে গিয়েই এ দুর্ঘটনার কবলে পড়ছে

রংপুর প্রচণ্ড শৈত্যপ্রবাহে আগুন পোহাতে যেয়ে  গত ২৪ ঘন্টায় আরো দুজন রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। গত ৫ দিনে এ নিয়ে ৪ জন অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা যাবার ঘটনা ঘটলো। অন্যদিকে ২০জন অগ্নিদগ্ধ হয়ে গুরতর আহত অবস্থায় হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এদের মধ্যে অন্তত ৬জনের অবস্থা আশংকাজনক।

গত ২৪ ঘন্টায় যে দুজন মারা গেছে তারা হলেন লালমনিরহাট জেলার আদিতমারী উপজেলার বড় কমলাবাড়ি গ্রামের শাহাজাহান আলী স্ত্রী শহিনা বেগম (২৩) এবং নীলফামারী জেলার ডিমলা উপজেলার খড়িবাড়ি গ্রামের নয়া মিয়ার ছেলে সাইমুল (১৮)।

রংপুর অঞ্চলে স্মরন কালের প্রচণ্ড শৈত্যপ্রবাহ জনজীবন পুরোপুরি অচল হয়ে পড়েছে। তাপমাত্রা প্রতিদিনই কমছে। গত এক সপ্তাহ ধরে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৭ থেকে ৮ ডিগ্রী সেলসিয়াসে ওঠা নামা করছে। তবে সবচেয়ে বিপাকে পড়েছে হাজার হাজার দরিদ্র পরিবারগুলো খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণ করার চেষ্টা করতে গিয়েই দুর্ঘটনার কবলে পড়ছে।

এ ব্যাপারে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের বিভাগীয় প্রধান সহকারী অধ্যাপক ডা, মারুফুল ইসলাম জানান শহরাঞ্চলের চেয়ে গ্রামাঞ্চলে শীতের তীব্রতা বেশী । সে জন্য তাদের মাঝে জরুরি ভিত্তিতে শীত বস্ত্র বিতরন করার দাবি জানান তিনি।