• সোমবার, জানুয়ারী ২০, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩৭ সকাল

বুড়িমারী সীমান্তে গ্রামবাসীর ধাওয়ায় শটগান ফেলে পালালো বিএসএফ

  • প্রকাশিত ১০:৪৭ রাত জানুয়ারী ১৮, ২০১৯
লালমনিরহাট

এ ঘটনায় সীমান্তে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী স্থলবন্দর সীমান্তে গ্রামবাসীর ধাওয়া খেয়ে অস্ত্র ফেলে পালিয়েছে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর টহল দলের এক সদস্য(বিএসএফ)। রংপুর-৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে. কর্নেল শরিফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তবে ওই বিএসএফ সৈনিকের নাম জানা যায়নি। 

শুক্রবার (১৮ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী ইউনিয়নের মুংলিবাড়ী সীমান্তের ৮৪১ নম্বর মেইনপিলারের ৬ নম্বর সাবপিলার এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সীমান্তে উত্তেজনা বিরাজ করছে। ভারতীয় সীমান্তে অতিরিক্ত বিএসএফ মোতায়েনের পর বিজিবিও পাল্টা মোতায়েন রয়েছে। 

রংপুর-৬১বিজিবি ব্যাটালিয়নের বুড়িমারী কোম্পানী কমান্ডার ইব্রাহিম মিয়া বলেন, "সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে মুংলিবাড়ী সীমান্তের কয়েকজন গরু চোরকারবারী ভারতীয় সীমান্ত অতিক্রম করার চেষ্টা করে। ভারতীয় কোচবিহার-১৪৮ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের চ্যাংরাবান্ধা কোম্পানী সদরের টহলরত দুইজন বিএসএফ সদস্য চোরকারবারীদের ধাওয়া করতে করতে বাংলাদেশ সীমান্তে অনুপ্রবেশ করে স্থানীয় মুংলীবাড়ী এলাকার বাসিন্দা আজিমুদ্দিন ভুট্টুর (৪৫) বাড়ীতে হামলার চেষ্টা করে। পরে স্থানীয় লোকজন বিএসএফ সদস্যদের ধাওয়া করলে ‘এসেলার’ নামের একটি শটগান ফেলে পালিয়ে যায়। এ ঘটনার কড়া প্রতিবাদ জানিয়ে বিএসএফকে পতাকা বৈঠকের আহবান করা হয়েছে"।

এদিকে বিএসএফের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে যে, তারা চোরাকারবারীদের ধাওয়া করতে গিয়ে বাংলাদেশে ঢুকে পড়লে গ্রামবাসীরা তাদের উপর হামলা চালায়। এসময় তাদের একটি ওয়াকিটকি এবং এসেলার শটগান খোয়া যায়।

অন্যদিকে, থমেথমে পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়ায় মুংলীবাড়ি এলাকা থেকে সকল নারী ও শিশুকে সরে যেতে বলা হয়েছে। 

জানতে চাইলে রংপুর-৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে. কর্নেল মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, "সরজমিনে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে পথে রয়েছি। কোচবিহার-১৪৮বিএসএফ ব্যাটালিয়নের পরিচালক বানাম্বার শাউয়ের সাথে যোগাযোগ হচ্ছে। শনিবার সকালে বৈঠকের সম্ভাবনা রয়েছে"।