• বৃহস্পতিবার, মে ২৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫৫ রাত

সেই নারী বাইকারের মেয়েদের বৃত্তি দিলো উবার

  • প্রকাশিত ০৪:১৯ বিকেল জানুয়ারী ২২, ২০১৯
শাহনাজ
ছবি: উবার ব্লগ

দুই মেয়েসহ পুরো পরিবারের দেখাশোনা করেন শাহনাজ। দুই মেয়েকে স্বাধীন ও স্বাবলম্বী করে বড় করে তোলার স্বপ্ন দেখেন তিনি।

রাইড শেয়ারিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান উবারের সেই নারী মোটরসাইকেল চালক শাহনাজের দুই মেয়েকে পড়াশোনার জন্য বৃত্তির ব্যবস্থা করেছে উবার কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার (২২ জানুয়ারি) প্রতিষ্ঠানটির এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে উবার জানায়, দেশে দুই বছর ধরে সেবা দিচ্ছে উবার। এর মধ্যে শাহনাজের ঘটনাটি তাদের হৃদয় ছুঁয়ে গেছে। উবার মটোচালক শাহনাজের সাহসিকতায় তারা মুগ্ধ। দুই মেয়েসহ পুরো পরিবারের দেখাশোনা করেন শাহনাজ। দুই মেয়েকে স্বাধীন ও স্বাবলম্বী করে বড় করে তোলার স্বপ্ন দেখেন তিনি।


শাহনাজের মতো সাহসী চালকেরা যাতে উবারের মাধ্যমে আয়ের পাশাপাশি পরিবারকে সাহায্য করতে পারেন, এ লক্ষ্যে ‘জেনারেশন নেক্সট’ নামের একটি উদ্যোগ নিয়েছে তারা। এই কার্যক্রমের আওতায় ড্রাইভার-পার্টনারদের জন্য বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা নিয়ে আসার পাশাপাশি নির্বাচিত তাদের পরিবারের জন্য স্কুলে বৃত্তির ব্যবস্থা করা হবে। শাহনাজের দুই মেয়েকে বৃত্তির মাধ্যমে এ কার্যক্রম শুরু হচ্ছে।

এ বিষয়ে শাহনাজ বলেন, ‘‘কিছুদিন আগে আমার মেয়েদের আগামী এক বছরের পড়াশোনার দায়িত্ব নেওয়ার কথা জানায় উবার। এটা আমাকে ভীষণভাবে সাহায্য করবে। আমার মেয়েদের স্কুলের সঙ্গে কথা বলে বৃত্তির ব্যবস্থা করে ফেলেছে উবার কর্তৃপক্ষ।’’

প্রসঙ্গত, গত ১৫ জানুয়ারি রাজধানীর মানিক মিয়া এভিনিউ থেকে শাহনাজের স্কুটি চুরি হয়। বিভিন্ন গণমাধ্যমে এই খবর প্রকাশের পর তা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দৃষ্টিগোচর হয়। চব্বিশ ঘণ্টার আগেই নারায়ণগঞ্জ থেকে স্কুটিটি উদ্ধার ও চোরকে গ্রেফতার করে পুলিশ।