• রবিবার, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:৩২ রাত

সৌদিতে ‘নির্যাতিত’ মাকে ফিরে পেতে দুই ভাইয়ের অপেক্ষা

  • প্রকাশিত ০৬:১০ সন্ধ্যা ফেব্রুয়ারি ৭, ২০১৯
সৌদিতে ‘নির্যাতিত’ মাকে ফিরে পেতে দুই ভাইয়ের অপেক্ষা
সৌদি আরবে নির্যাতনের শিকার মাকে ফিরে পেতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন বগুড়ার শাজাহানপুরের মিঠু ও মিলন। ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন

বিভিন্ন সময় সৌদি আরব থেকে ফোনে স্বজনদের কাছে অসহ্য নির্যাতনের কথা জানিয়েছেন তিনি

সৌদি আরবে ‘নির্যাতিত’ মায়ের জন্য গত এক ধরে অপেক্ষা করছেন বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার মাঝিড়াপাড়া গ্রামের মিঠু ও মিলন। স্থানীয় দালালরা ভালো বেতনে গৃহকর্মীর চাকরির প্রলোভনে তাকে সৌদি আরবে পাঠিয়ে যৌনকর্মীর কাজ করাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন তারা। 

মাকে ফিরে পেতে তারা গত ৩ জানুয়ারি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত আবেদন করেছিলেন। এতে কাজ না হওয়ায় বুধবার (৬ জানুয়ারি) আবারও আবেদন করেন তারা।

মায়ের জন্য অপেক্ষারত দুই সহোদর ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, স্থানীয় দালালরা আদম পাচারকারীদের মাধ্যমে ৭ মাস আগে তাদের মাকে গৃহপরিচারিকার চাকরি দেওয়ার নাম করে সৌদি আরবে নিয়ে যায়। কিন্তু সেখানে পৌঁছানোর পর তাকে দিয়ে যৌনকর্মীর কাজ করানো হচ্ছে। বিভিন্ন সময় সৌদি আরব থেকে ফোনে স্বজনদের কাছে অসহ্য নির্যাতনের কথা জানিয়েছেন তিনি। মাকে ফিরে পেতে এজেন্সির লোকদের কাছে ধর্না দিলেও তারা একেক সময় একেক কথা বলছেন। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ওই নারীকে সৌদিতে পাঠানো রিক্রুটিং সংস্থা তাসলিম এয়ার ইন্টারন্যাশনাল এজেন্সির প্রতিনিধি হাবিবুর রহমান মুঠোফোনে ঢাকা ট্রিবিউনকে জানান, দুই ছেলের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ওই নারীকে দেশে ফিরিয়ে নিয়ে আনার কাজ চলছে। তবে কবে নাগাদ তাকে দেশে ফেরানো যেতে পারে সে বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারেননি তিনি। 

শাজাহানপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফুয়ারা খাতুন জানান, ওই নারীকে দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।