• রবিবার, আগস্ট ১৮, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:০২ রাত

পলক: ভবিষ্যত বিশ্বের আইসিটি লিজেন্ড হবে বাংলাদেশ

  • প্রকাশিত ০৩:৩৬ বিকেল ফেব্রুয়ারি ৯, ২০১৯
জুনাইদ আহমেদ পলক
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।ফাইল ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন

"২০২১ সালের মধ্যে দেশের প্রতিটি এলাকাকে ডিজিটাল হাইস্পিড ইন্টারনেটের আওতায় নিয়ে আসা হবে"

তথ্য ও যেগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, অদূর ভবিষ্যতে বিশ্বের আইসিটি সেক্টরে লিজেন্ড হবে বাংলাদেশ। সে লক্ষে ২০২১ সালকে টার্গেট করে সরকার কাজ করছে। সময় এসেছে মেধাভিত্তিক অর্থনীতির ওপর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তোলার।

শনিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) সকালে কক্সবাজার শহরের একটি হোটেলে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) এর উদ্যোগে তিন দিনব্যাপী ‘তড়িৎ, কম্পিউটার কৌশল ও যোগাযোগ-প্রযুক্তি বিষয়ক দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক সম্মেলন’ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, আজ থেকে ১০ বছর আগে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিল ৫৬ লাখ, আর এখন ৯ কোটি ৬০ লাখ। সরকারের কোনও দফতরে ডিজিটাল সার্ভিস ছিলনা; এখন ৫ শতাধিক সেক্টরে অটোমেটিক সার্ভিস চালু করা হয়েছে। আইটি সেক্টরে কোনও কর্মসংস্থান ছিলনা; এখন এ সেক্টরে প্রায় ১০ লাখ মানুষ কাজ করছে। ইনফরমেশন কমিউনিকেশন নেটওয়ার্ক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শুরু করে গ্রাম পর্যায়ে চলে গেছে। প্রায় ৩৮শ' ইউনিয়নে ফাইবার অপটিক ক্যাবলের মাধ্যমে হাইস্পিড ইন্টারনেট ব্রডব্যান্ড পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। ২০২১ সালের মধ্যে দেশের প্রতিটি এলাকাকে ডিজিটাল হাইস্পিড ইন্টারনেটের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

টেকনিক্যাল প্রোগ্রাম কমিটির চেয়ারম্যান প্রফেসর ডক্টর মো. মশিউল হকের সভাপতিত্বে সমাপনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর আবদুল মান্নান, চুয়েটের উপচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম, আইইইই এর চেয়ারম্যান প্রফেসর ডক্টর সেলিয়া শাহনাজ প্রমুখ।

এবারের আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান সম্মেলনে দেশি-বিদেশি ৩০০ জন ইলেক্ট্রনিক্যাল, ইলেক্ট্রনিক, কম্পিউটার সায়েন্স এবং টেলিকমিউনিকেশন বিষয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, বিজ্ঞানী, গবেষক, স্কলার্স এবং পরিকল্পনাবিদ অংশ নেন।